advertisement
আপনি দেখছেন

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার ঘটনা। সবে ঘুম ভেঙে কাজ শুরু করেছেন মানুষজন। এমন সময় একটি বাড়ির দরজায় কড়া নাড়ার আওয়াজ। দরজা খুললেন এক তরুণী। ২২ বছরের ওই তরুণী ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছেন। বাড়িতে দাদীর সঙ্গে থাকেন তিনি। কারণ মা-বাবা আগেই তাকে ছেড়ে চলে গেছেন।

young woman killed with burnt

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দরজা খুলে যে যুবককে ওই তরুণী সামনে দেখতে পান সে তার পূর্ব পরিচিত। অল্প সময়ের কথা থেকে ঝগড়া লেগে যায় তাদের মধ্যে। তার পর কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই তরুণীর গায়ে পেট্রোল ঢেলে তাকে পুরো ভিজিয়ে দেয় ওই যুবক। এর পর আগুন ধরিয়ে দেয় ওই যুবক। দাউ দাউ করে জ্বলতে শুরু করেন তরুণী। চিৎকার করতে থাকেন।

তরুণীর আর্তনাদ শুনে প্রতিবেশী ও পথচারীরা ওই বাড়ির দিকে ছুটে যান। কয়েকজন তরুণীর আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই তরুণীর।

অবশ্য পালিয়ে রক্ষা হয়নি ওই যুবকের। স্থানীয়রাই ধরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

পুলিশ বলছে, নীতীশ নামের ওই যুবক কেন ওই তরুণীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে তা জানা যায়নি। তবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করছে পুলিশ।

মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কেরালা রাজ্যের ত্রিচূড়ে।

পুলিশ বলছে, পুরো ঘটনা পরিকল্পিত ছিল। আর তাই আসার সময় পেট্রোল সঙ্গে করেই এনেছিল ৩২ বছরের ওই যুবক।