আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 57 মিনিট আগে

এবার মার্কিন সেনাবাহিনীর কেন্দ্রীয় কমান্ডকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করতে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।

iran president foreign minister

ইরানের ইসলামিক রিভল্যুশনারি গার্ড কর্পসকে (আইআরজিসি) ট্রাম্প প্রশাসন সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার পরই এ আহ্বান জানালেন জারিফ।

রুশ গণমাধ্যম আরটি বলছে, জাভেদ জারিফ তার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি এবং ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের কাছে পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, পশ্চিম এশিয়ার সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর প্রতি মার্কিন বাহিনীর ‘স্পষ্ট সমর্থন’ এবং তাদের নিজেদের ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত’ থাকার কারণে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের উচিত এই অঞ্চলে মার্কিন সেনাবাহিনীকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করা।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে আজ সোমবার ট্রাম্প প্রশাসন ইরানের এলিট ফোর্স আইআরজিসিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করে। ইরানের এ বাহিনী অত্র অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদকে লালন-পালন করছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে।

বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ‘যদি কেউ আইআরজিসির সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে লেনদেন করে, তাহলে ধরে নেওয়া হবে তারা সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করে।’

ট্রাম্পের ওই ঘোষণার পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জানান, এই ঘোষণা এক সপ্তাহের মধ্যে কার্যকর হবে।

প্রসঙ্গত, ট্রাম্প যে ইরানি এলিট ফোর্সকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দিতে যাচ্ছেন তা গত সপ্তাহের শেষ দিকে প্রকাশ করে মার্কিন গণমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল।

খবর প্রকাশের পর ইরানের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমেরিকা যদি তাদের সেনাবাহিনীকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করে তাহলে তেহরানও মার্কিন সেনাবাহিনীকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করবে। যা হবে দায়েশের (আইএস) পর দ্বিতীয় কোনো সংগঠন।