advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

তাইওয়ানে এক নারীর চোখ পরীক্ষা করতে গিয়ে ডাক্তাররা আবিষ্কার করেছেন যে, তার চোখের ভেতরে চারটি জীবন্ত মৌমাছি রয়েছে। তাইওয়ানে এ রকম ঘটনার কথা আগে কখনো শোনা যায়নি।

taiwan bee

ওই নারীর নাম মিজ হে, বয়স ২৮। তিনি তার এক আত্মীয়ের কবর থেকে আগাছা পরিষ্কার করছিলেন, সে সময় বাতাসের ঝাপটায় মৌমাছিগুলো তার চোখের ভেতর ঢুকে যায়। তিনি ভেবেছিলেন, তার চোখে ধুলা পড়েছে।

ফুয়িন বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের ডাক্তার হং চি তিং বিবিসিকে বলেন, তিনি পাঁচ মিলিমিটার লম্বা পতঙ্গগুলোকে টেনে বের করে আনার পর নিজেই স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছিলেন।

তাইওয়ানের টিভিতে মৌমাছিগুলোর ছবি দেখানো হয়েছে।

এগুলো যে ধরনের মৌমাছি তাকে বলে সোয়েট বী বা হ্যালিস্টিডি। এরা মানবদেহের ঘামের প্রতি আকৃষ্ট হয় এবং কখনো কখনো ঘামের সঞ্চার ঘটাতে মানুষের দেহে এসে বসে।

এ ছাড়া এই মৌমাছি মানুষের চোখের পানিও পান করে, কারণ চোখের অশ্রুতে প্রোটিনের পরিমাণ অনেক বেশি। যুক্তরাষ্ট্রের কানসাসের এক প্রতিষ্ঠানের চালানো গবেষণায় এ কথা বলা হয়।

খবরে বলা হয়েছে, মিজ হে এখন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন, এবং তিনি পুরোপুরি সেরে উঠবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

মৌমাছি ঢুকে যাবার সময় মিজ হে ভেবেছিলেন, তার চোখে হয়তো ধুলাবালি পড়েছে। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরও চোখের ফোলা ও ব্যথা না কমায় তিনি ডাক্তারের কাছে যান।

sheikh mujib 2020