advertisement
আপনি দেখছেন

যুক্তরাজ্যের আসন্ন পার্লামেন্ট নির্বাচনে জয় লাভ করে ক্ষমতায় গেলে সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন। গতকাল রোববার দলের পররাষ্ট্র নীতি সম্পর্কে দেয়া এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন তিনি। খবর আল-জাজিরা।

jeremy corbynজেরেমি করবিন

আগামী ১২ ডিসেম্বর ব্রিটশ পার্লামেন্টের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এবারের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন লেবার পার্টির নেতা করবিন। নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে দলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন তিনি।

সৌদি আরব আমদানি করা অস্ত্র ইয়েমেনের মানুষের ওপর ব্যবহার করছে উল্লেখ করে জেরেমি করবিন বলেন, আমরা ক্ষমতায় গেলে দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করে দেবো। সেইসঙ্গে ইয়েমেন যুদ্ধের অবসান ঘটাতে সব ধরনের প্রচেষ্টা কাজে লাগানো হবে।

লেবার পার্টির পররাষ্ট্র নীতির বিষয়ে তিনি বলেন, গোটা বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় আমরা 'সংঘাত প্রতিরোধ তহবিল' গঠন করবো। কূটনৈতিক সক্ষমতা বাড়াতে অতিরিক্ত ৪০০ মিলিয়ন পাউন্ড বিনিয়োগ করা হবে। আমরা ইয়েমেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মতো ভূখণ্ডে সংঘাত বৃদ্ধিতে জ্বালানি জোগাবো না।

এর আগে গত জুনে যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি জানিয়েছিল, সৌদি আরব বা ইয়েমেনে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত কোনো দেশের কাছে নতুন করে আর অস্ত্র রপ্তানির অনুমোদন দেয়া হবে না। ব্রিটিশ আদালত সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি বেআইনি ঘোষণা করার পর এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় দেশটির সরকার।