advertisement
আপনি দেখছেন

যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের অস্ত্র ন্যাটোর ঘাড়ে চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লি। এ জন্য দেশটির সরকারে কড়া সমালোচনাও করেন তিনি।

florence parleyফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লি

রোববার ফ্রান্সের একটি সাপ্তাহিক পত্রিকায় দেয়া সাক্ষাৎকারে পার্লি বলেন, মার্কিন সরকার নিজেদের তৈরি এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান ন্যাটো জোটের সদস্য দেশগুলোর ঘাড়ে চাপিয়ে দেয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের চাপ সৃষ্টি করছে।

তিনি আরো বলেন, ১৯৪৯ সালে গঠিত হওয়া ২৯ জাতির সামরিক জোট ন্যাটোর সনদের পঞ্চম অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, সদস্য দেশগুলো একে অপরকে শত্রুদের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে কেউই জঙ্গি বিমান কিনতে বাধ্য নয়। তারপরও চাপে পড়ে ইতোমধ্যে ইউরোপীয় দেশ নরওয়ে, নেদারল্যান্ড, ইতালি এবং ব্রিটেন মার্কিন সরকারের কাছ থেকে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান কিনেছে।

এছাড়াও স্পেন, রোমানিয়া ও পোল্যান্ডের কাছে এ বিমান বিক্রির চেষ্টা করছে আমেরিকা। তবে তুরস্কের কাছে এ বিমান বিক্রি করতে চায় না ওয়াশিংটন। কারণ তারা রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনেছে।

ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী এমন এক সময় এ অভিযোগ করলেন, যার কিছুদিন আগেই দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রন ন্যাটো জোট নিয়ে তীর্যক মন্তব্য করেন। বৃহস্পতিবার প্যারিসে ন্যাটো মহাসচিব জেন্স জেন্স স্টোল্টেনবার্গের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এমানুয়েল ম্যাক্রন বলেন, বর্তমানে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাটো মূলত অকার্যকর হয়ে পড়েছে। যেটাকে কার্যত ব্রেন ডেথের সঙ্গে তুলনা করা যেতে পারে।

এর আগে গত মার্চেও যুক্তরাষ্ট্রে কড়া সমালোচনা করেন ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তখনও তিনি বলেছিলেন, ওয়াশিংটন তাদের নিজেদের তৈরি অস্ত্র কেনার জন্য ন্যাটোর সদস্য দেশগুলোর ওপর চাপ সৃষ্টি করছে।

sheikh mujib 2020