advertisement
আপনি দেখছেন

বেকারত্ব কমাতে এবং নিজ দেশের যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে বিদেশি পুরুষ কর্মীদের ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে লেবানন সরকার। সম্প্রতি দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতির মাধ্যমে এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

worker visa closedপুরুষকর্মীদের জন্য লেবাননের ভিসা বন্ধ

বিবৃতিতে বলা হয়, জরুরি ঘোষণা ছাড়া বিদেশিকর্মী নিয়োগের জন্য আবেদন অনুমোদন করা হবে না। পাশাপাশি দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে দেশীয় সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানগুলোকে যতটা সম্ভব লেবাননের শ্রমশক্তির ওপর নির্ভর করতে হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দেশটিতে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, চরম ডলার সংকটে পড়েছে লেবানন। তাই সংকট মোকাবেলায় বৈদেশিক মুদ্রা স্থানান্তরের পরিমাণ কমাতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। তবে নারী কর্মীদের ভিসা আগের মতোই চালু থাকবে।

তিনি বলেন, এ ব্যাপারে দাপ্তরিক কোনো আদেশপত্র এখনো দূতাবাসের কাছে আসেনি। মিডিয়ায় এ সংক্রান্ত খবর দেখার পর দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এ নিষেধাজ্ঞা শুধু বাংলাদেশের জন্য নয়, বিশ্বের সব দেশের জনশক্তির ক্ষেত্রেই তা প্রযোজ্য বলে জানান দূতাবাসের কাউন্সিলর আবদুল্লাহ আল মামুন।

প্রসঙ্গত, দেশটিতে বাংলাদেশ, সুদান, সিরিয়া, মিশর, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, তুরস্কসহ প্রায় ১০টি দেশের কর্মী নিয়োজিত আছেন। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কর্মী বাংলাদেশের। প্রায় দেড় লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক আছেন সেখানে।

sheikh mujib 2020