advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের অযোধ্যায় বিতর্কিত বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনা সংক্রান্ত প্রক্রিয়া থেকে মুসলিম দলগুলোর প্রতিনিধিত্বকারী আইনজীবী রাজীব ধবনকে বাদ দিয়েছে জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ। মঙ্গলবার এক ফেসবুক পোস্টে ওই সিনিয়র আইনজীবী নিজেই এ কথা জানান।

babri mosjid rajibবাবরি মসজিদ মামলা থেকে রাজীবকে অব্যাহতি

ফেসবুক পোস্টে অ্যাডভোকেট রাজীব জানান, বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনার জন্য সোমবার সুপ্রিম কোর্টে যে রিভিউ পিটিশন দাখিল করা হয়েছে, সেখান থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তিনি এখন থেকে আর এ মামলার সঙ্গে জড়িত নন।

তিনি আরো জানান, ওই মামলার জমিয়তের মূল অ্যাডভোকেট (অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড বা এওআর) ইজাজ মকবুল তাকে মামলা থেকে অব্যহতি দিয়ে চিঠি দিয়েছেন। তিনিও কোন মন্তব্য ছাড়া এই সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছেন। ওই মামলায় ইজাজ মকবুলের অধীনেই কাজ করছিলেন তিনি।

রাজীব আরো জানান, মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার কোন যথাযথ কারণ চিঠিতে জানানো হয়নি। শুধু বলা হয়েছে, তিনি অসুস্থ, তাই তাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু এটি একেবারেই মিথ্যা এবং কাল্পনিক একটি কারণ।

rajeeb dhaban statusসামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অ্যাডভোকেট রাজীব ধবনের দেওয়া স্ট্যাটাস

এ বিষয়ে অ্যাডভোকেট ইজাজ মকবুল ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার রায়ের রিভিউ পিটিশন দাখিল করার সময় অ্যাডভোকেট রাজীব ডাক্তারের কাছে ছিলেন। তাই এ মামলায় তার পরামর্শ নেয়া সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ৯ নভেম্বর ভারতের বহুল আলোচিত ও বিতর্কিত অযোধ্যা মামলায় ভেঙে ফেলা বাবরি মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণের অনুমতি দেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। সেইসঙ্গে মসজিদের জন্য শহরের সুবিধাজনক ও গুরুত্বপূর্ণ কোনো স্থানে ৫ একর জমি দেয়ার আদেশ দেয়া হয়। ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ সর্বসম্মত হয়ে এ রায় ঘোষণা করেন।

পরে ২ ডিসেম্বর সোমবার এ রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দাখিল করে জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ।