advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 56 মিনিট আগে

প্লাস্টিকের দূষণের ফলে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের হেন্ডারসন দ্বীপ ও ভারত মহাসাগরের কোকাস (কিলিং) দ্বীপপুঞ্জে মারা গেছে লাখ লাখ সামুদ্রিক কাঁকড়া। সম্প্রতি চারটি দ্বীপে গবেষকদের চালানো এক জরিপের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

crab death

দ্বীপগুলোতে এ জরিপ চালায়, লন্ডনের ন্যাচারাল হিস্ট্রি মিউজিয়াম, কমিউনিটি সায়েন্স অর্গানাইজেশন টু হ্যান্ডস প্রজেক্ট এবং অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব তাসমানিয়ার ইনস্টিটিউট ফর মেরিন অ্যান্ড অ্যান্টার্কটিক স্টাডিসের গবেষকরা।

তারা জানান, হেন্ডারসন দ্বীপে ৬১ হাজার ও কোকোস (কিলিং) দ্বীপপুঞ্জে ৫ লাখ আট হাজার সামুদ্রিক কাঁকড়া মরে পড়ে ছিল। উপকূলের প্রতি বর্গকিলোমিটার থেকে দুটি করে মৃত কাঁকড়া পাওয়া যায়।

গবেষকরা উপকূলে পড়ে থাকা প্লাস্টিকের কন্টেইনারের ভেতরে মৃত কাঁকড়াগুলোকে গুনে দেখেন এবং সেগুলোর তথ্য সংগ্রহ করে বিশ্লেষণ করেন। পরে কোকোস দ্বীপপুঞ্জের আরো ১৫টি দ্বীপের ফলাফলের সঙ্গে সেই তথ্য মিলিয়ে দেখেন।

ন্যাচারাল হিস্ট্রি মিউজিয়ামের সিনিয়র কিউরেটর ড. অ্যালেক্স বন্ড বলেন, সামুদ্রিক কাঁকড়াদের নিজস্ব কোন খোলস থাকে না। যখন কোন কাঁকড়া কোন প্লাস্টিকের কন্টেইনারে আটকা পড়ে এবং মারা যায়, তখন অন্য কাঁকড়ারা এক ধরণের রাসায়নিক সংকেত পাঠায়। যার মানে হলো- একটি খোলস খালি পড়ে আছে।

তিনি আরো বলেন, এই সংকেতে আকৃষ্ট হয়ে অন্য কাঁকড়ারা ওই কন্টেইনারটিতে প্রবেশ করে এবং তারাও মারা যায়। প্লাস্টিকের দূষণই এই কাঁকড়ার মৃত্যুর কারণ।

sheikh mujib 2020