advertisement
আপনি দেখছেন

গরু পালনের উপকারিতার মুকুটে নতুন পালক যোগ করলেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস) প্রধান মোহন ভাগবত। ভারতের পুনেতে গো–সেবা পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সংবাদসংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেন, জেলের মধ্যে যেসকল বন্দিরা গরুপালন করে, তাদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা কমে যায়।

cow vagabatআরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত বলেছেন গরুপালনে অপরাধ প্রবণতা কমে

শুধু এ কথা বলেই ক্ষান্ত হননি ভাগবত। প্রমাণও তুলে ধরেছেন। তিনি জানান, এটা কোনো উড়ো কথা বয়। বিভিন্ন জেলের কারাধ্যক্ষের সাথে কথা বলে তিনি জেনেছেন, যে সকল বন্দি নানান অপরাধে জেলে থাকার সময় গরু পালন ও দেখাশোনা করেছেন, মুক্তির পরও তাদের অনেকেই আর কোনো অপরাধ করেননি। এ কারণে প্রতিটি জেলেই গরুপালনের ওপর জোর দেন তিনি।

মোহন ভাগবতের নতুন এই তথ্য নেটিজেনদের হাসির খোড়াকে পরিণত হলেও অনুসারীরা বলছেন, কটাক্ষ করার মতো কিছুই বলেননি তিনি। তারা বলছেন নিরীহ গৃহপালিত প্রাণী গরু পালনে পবিত্রতা আছে। প্রানীসেবায় মানুষের মানবিকতা বাড়ে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ধর্ষণের ঘটনায় যখন দেশটি উত্তাল তখন মানুষের অপরাধ প্রবণতা কমানো প্রসঙ্গে এ কথা বললেন ভাগবত। এর আগে সমাজের সব মহিলাকে মর্যাদা দেবার কথা উল্লেখ করে এ ধরনের অপরাধে সহিষ্ণুতা না দেখানোর কথা বলেছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি গরুর লেজে হাত বুলিয়ে নানান রোগমুক্তির কথা বলে হাসির পাত্র হয়েছেন ভোপালের বিজেপি সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা। এর কিছুদিন পর গরুর দুধে সোনা থাকে বলে উল্লেখ করেন পশ্চিম বাংলার বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিকে উত্তরপ্রদেশ সরকার গরুর কল্যাণের জন্য আলাদা দপ্তর তৈরি করেছে। শীতে গরুদের যেন ঠাণ্ডা না লাগে সেজন্য শীতবস্ত্রও দেয়া হয়েছে।