advertisement
আপনি দেখছেন

সুইডেনের পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ যখন বিশ্ববাসীকে জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহতা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছেন, ঠিক তখনই তাকে ‘পাজি মেয়ে’ আখ্যা দিলেন ব্রাজিলের কট্টর ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট জায়ার বোলসোনারো।

greta brasil presidentপরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গকে ‘পাজি মেয়ে’ বললেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জায়ার বোলসোনারো

সম্প্রতি অ্যামাজনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে সেখানকার ২ জন উপজাতি মারা যাবার ঘটনায় ব্রাজিলের তীব্র সমালোচনা করেন সারা জাগানো ষোড়শী এই পরিবেশবাদী।

এক টুইটে থুনবার্গ বলেন, বন বাঁচাতে যারাই চেষ্টা করছেন তাদেরকেই মেরে ফেলা হচ্ছে। এ ব্যাপারে বিশ্ববাসীর নীরব থাকাটা লজ্জাজনক।

এ কথায় চটেন বোলসোনারো। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন তোলেন, মিডিয়া একটা পাজি মেয়েকে কেন এতো পাত্তা দেয়।

মঙ্গলবার পর্তুগিজ ভাষায় গ্রেটাকে ‘পিরালহা’ বলে বলে সম্মোধন করেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট। সেদেশে ‘কথা না শোনা’ বাচ্চাদেরকে বকে দেয়ার জন্য এ শব্দটি ব্যবহার করা হয়।

তার এ কথা নিয়ে মশকরাও করেছেন থুনবার্গ। বেশ কিছু সময়ের জন্য নিজের টুইটার বায়ো'তে 'পিরালহা' শব্দটা এঁটে দিয়েছিলেন।  

greta twitter pirralhaগ্রেটা যেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টকে উপহাসই করলেন

তবে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের এমন কথা এটাই নতুন নয়। কিছুদিন আগে দাবি করেছিলেন অ্যামাজনে আগুন দিতে যারা কাজ করেছে তাদের নাকি সাহায্য করেছেন টাইটানিক খ্যাত হলিউড সুপারস্টার লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও।

চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে অ্যামাজন বনে লাগা আগুনে ভয়াবহ দাবানলের সৃষ্টি হয়। ব্রাজিল, বলিভিয়া, পেরু ও প্যারাগুয়ের বিভিন্ন অংশে জুন ও জুলাই মাস থেকে দাবানলের সূত্রপাত হলেও বিশ্ববাসীর দৃষ্টিগোচর হয় আগস্টে। এতে বনের প্রায় সোয়া ২ কোটি একর জায়গা পুড়ে যায়।

আমাজনের খবরে অনেকদিন ধরেই গ্রেটার মতো তরুণ-তরুণীরা প্রতিবাদ করে আসছে। গ্রেটার জলবায়ু পরিবর্তন আন্দোলন নিজ দেশ থেকে শুরু হলেও ক্রমেই ইউরোপের বেশ কটি দেশে ছড়িয়ে পড়ে।