advertisement
আপনি দেখছেন

দেশজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে ভারতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনে ‘কিছুটা পরিবর্তন’ আনা হতে পারে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে আইনটি নিয়ে যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে সেজন্যে বিরোধী দল কংগ্রেসকে দায়ী করেছেন তিনি।

amit sah billভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

বুধবার বিতর্কিত মুসলিমবিরোধী নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি ভারতের লোকসভার থেকে পাশ করার পর বৃহস্পতিবার রাজ্যসভা থেকেও পাস করা হয়। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিতর্কিত এই বিলটি পেশ করলে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের পর ১২৫-১০৫ ভোটের ব্যবধানে বিলটি পাস হয়। এরপর রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর করলে বিলটি আইনে পরিণত হয়।

আইনটি পাস হওয়ার পর প্রথমবারের মতো কোনো সভায় কথা বলেন অমিত। শনিবার এক র‌্যালি শেষে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে নির্যাতিতদের রক্ষা করার সম্পূর্ণ দায়িত্ব সরকারের। আইনটি নিয়ে সমস্যার কথা জানাতে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী তার সাথে দেখা করেছেন। এ সময় তিনি জানিয়েছেন, প্রয়োজনে আইনে কিছুটা পরিবর্তন আসতে পারে। এ নিয়ে ‘ভয়ের কিছুই নেই’ উল্লেখ করে ক্রিস্টমাসের পর তাদের দেখা করতে বলেছেন বলে জানান তিনি।

২০১৫ সালের আগে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার হয়ে পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ ছেড়ে যাওয়া বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান, হিন্দু, জৈন, পার্সি ও শিখদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দিতেই এ আইন করা হয়েছে। তবে এতে মিয়ানমারে নিপীড়ন থেকে পালানো রোহিঙ্গা মুসলিম উদ্বাস্তুদের জন্য কোনো সুবিধা রাখা হয়নি।