advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দেশজুড়ে চলমান বিক্ষোভে বিভিন্ন রাজ্যে এপর্যন্ত ১৪ জন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে শুক্রবারই নিহত হয়েছেন ৬ জন। সেই সঙ্গে বিক্ষোভ থেকে ৪ হাজারেরও বেশি মানুষকে আটক করা হয়েছে।

india unrest police action

শুক্রবার দেশটির রাজধানীসহ অন্যান্য বিভিন্ন শহরে ইন্টারনেট বন্ধ রাখার পাশাপাশি জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করে পুলিশ। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই নয়াদিল্লিতে অবস্থিত ভারতের অন্যতম বড় মসজিদ, জামা মসজিদের ভেতরে জড়ো হন হাজারো বিক্ষোভকারী। এসময় ভারতীয় পতাকা উত্তোলন করে সরকার ও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন তারা।

সকাল থেকেই উত্তাল ছিল জামা মসজিদ চত্বর। জুমার নামাজের পর বিক্ষোভকারীরা মসজিদ থেকে মিছিল বের করে পার্লামেন্ট এলাকার ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত যেতে চাইলেও ছাড়পত্র দেয়নি পুলিশ।

সংশোধিত নাগরিক আইন নিয়ে বিক্ষোভে সবচেয়ে বেশি সহিংসতা হয়েছে উত্তর প্রদেশে, যেখানে বিক্ষোভকানীরা পুলিশ চৌকিসহ কয়েকটি যানবাহনে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং নিরাপত্তাবাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করে।

delhi jama masjid

আটকের ঘটনাও সবচেয়ে বেশি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। রাজ্য পুলিশ প্রধান ও.পি. সিং জানান, এপর্যন্ত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত একশোরও বেশি বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার এবং ৩ হাজার ৩০৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে নাগরিকত্ব আইন বাতিল চেয়ে আবেদনের পক্ষে শুক্রবার নয়াদিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে সাধারণ মানুষের স্বাক্ষর গ্রহণ করেছেন প্রায় ১০ হাজার বিক্ষোভকারী।

সমালোচকরা বলছেন, ভারতের বিতর্কিত এই নাগরিকত্ব আইন দেশটির কয়েক লাখ মুসলিমকে বিতাড়িত করার একটি চক্রান্ত। ইউএনবি।