advertisement
আপনি দেখছেন

নাগরিকপঞ্জি ও সংশোধিত নাগরিক আইন নিয়ে যে উত্তেজনা চলছে তা থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে ভারত সীমান্তে সংঘাত বাধাতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আর সে চেষ্টা হলেও দাতভাঙা জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি।

imran pakistan

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, গত কয়েকদিন ধরে একদিকে যেমন দেশের অভ্যন্তরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত, তেমনই সীমান্তেও বাড়ছে উত্তেজনা। গত কয়েকদিনে একাধিকবার সীমান্তে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালানো হয়েছে। ভারতীয় সেনারা তার কড়া জবাবও দিয়েছে। শনিবারই দুই পাক সেনার মৃত্যু হয়েছে ভারতীয় বাহিনীর হাতে। আর তার পরই নাকি কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী।

শনিবার ট্যুইট করে ফের ভারতের অভ্যন্তরীণ সমস্যার বিষয়ে কথা বলেন ইমরান খান। তার দাবি, ভারতের অভ্যন্তরে চলা বিক্ষোভ থেকে নজর ঘোরাতে কোনও অপারেশন চালাতে পারে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এর জন্য নাকি আগে থেকে সতর্ক করছেন তিনি।

পাক প্রধানমন্ত্রীর দাবি, যুদ্ধের জিগির তুলে হিন্দু জাতীয়বাদ জাগিয়ে তুলতে চাইতে পারে ভারত। আর সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের যোগ্য জবাব দেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।

কাশ্মিরে রক্তপাতের অভিযোগ আগেও তুলেছেন ইমরান খান। আরও একবার সেই কথা বললেন তিনি। লিখেছেন, ‘গত পাঁচ বছরে মোদি সরকার ক্রমশ হিন্দু রাষ্ট্র তৈরির পথে এগিয়েছে।’

ভারতীয় গণমাধ্যম দাবি করছে, শনিবার কাশ্মিরের আখনুর সেক্টরে আক্রমণের চেষ্টা চালায় পাক সেনা। আর তার জবাব দেয় ভারত। তখনই দুই পাক সেনার মৃত্যু হয়।