advertisement
আপনি দেখছেন

মনোযোগ দিয়ে নেতার ভাষণ শুনছিলেন সাধারণ মানুষ। তখন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন দলের অন্য নেতাকর্মীরাও। তারই মাঝে ঘটে গেল অঘটন। ভারতের মোদি সরকারের পাস করা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) সমালোচনা করতেই হঠাৎ করে প্যান্ট খুলে গেল বক্তার। বক্তা আর কেউ নন, তিনি দেশটির বিহার রাজ্যের আরজেডি নেতা তথা রাজ্যসভার সংসদ সদস্য আশফাক করিম।

modi critisism india

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, মঞ্চে দাঁড়িয়ে মোদির আনা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে তীব্র সমালোচনা করছিলেন আশফাক করিম। আর তখনই অসাবধানতাবশত তার প্যান্ট নেমে যায়। যা নিয়ে অস্বস্তিতে পড়েন আরজেডি নেতা। কিন্তু তাতেও দমেননি তিনি। তৎক্ষণাৎ নিচু হয়ে প্যান্টটি তুলে নেন তিনি।

মোদি সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ওই আইনের মাধ্যমে সরকার পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আগত প্রত্যেককে নাগরিকত্ব দেবে, তবে বাদ মুসলিমরা। তার পরই খুলে যায় প্যান্ট।

ভিডিওর বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, তার সেই প্যান্ট তুলে দেওয়ার চেষ্টা করেন মঞ্চে দাঁড়ানো অপর এক নেতা। কিন্তু তাকে বারণ করে নিজেই প্যান্ট তুলে নেন আশফাক করিম। এর পর তিনি ফের মোদির সমালোচনায় মেতে উঠেন। দুই বার কথার খেই হারিয়ে পরক্ষণেই সামলে নিয়ে বক্তৃতা শুরু করেন তিনি।

এদিকে, ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করেছেন দিল্লি নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী তাজিন্দর পাল সিং বাগ্গা। ভিডিওটি টুইট করে তিনি আশফাক করিমকে কটাক্ষ করে লিখেছেন, ‘এর জন্যও নরেন্দ্র মোদিকে দায়ী করা হবে।’