advertisement
আপনি দেখছেন

নিউজিল্যান্ডের মতো এবার জার্মানিতে বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা করেছিল দেশটির একটি উগ্রপন্থী গোষ্ঠী। কিন্তু গত শুক্রবার তাদের পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিয়েছে জার্মান পুলিশ।

germany right wing extremist

বিবিসি জানায়, ডার হার্টে কার্ন (দ্য হার্ড কোর) নামক ওই সংগঠনের উগ্র সদস্যরা জার্মানির বেশ কিছু মসজিদে নাশকতার পরিকল্পনা করছিল। গোষ্ঠীটি শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদে বিশ্বাসী।

এর পর দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গত শুক্রবার অভিযান চালিয়ে গোষ্ঠীটির প্রতিষ্ঠাতা ও নেতা ওয়ের্নার এস-সহ প্রায় এক ডজন সদস্যকে গ্রেপ্তার করে। সেইসঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র ও ঘরে তৈরি বোমাসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, উগ্র গোষ্ঠীটি নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ হামলার অনুকরণে জার্মানিজুড়ে বেশ কয়েকটি মসজিদে হামলার পরিকল্পনা করেছিল। তাদের অন্যতম লক্ষ্য ছিল বড় ধরনের হামলার মাধ্যমে অনেক মানুষকে হত্যা করা। তবে তাদের আসল লক্ষ্য ছিল আরো ভয়ঙ্কর।

উল্লেখ্য, গত বছর নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে একটি মসজিদে ফিলমি স্টাইলে হামলা চালায় এক উগ্রবাদী শ্বেতাঙ্গ। ওই হামলায় অর্ধ শতাধিক মুসলিম নিহত হন।

germany right wing extremist01

জার্মান পুলিশ আরো জানায়, গোষ্ঠীটি মনে করেছিল, হামলার পর মুসলিমরা এর বদলা নিতে তাদের ওপর পাল্টা হামলা করবে। এর পাশাপাশি সরকারি অভিযানের কারণে তারা শ্বেতাঙ্গদের সমর্থন পাবে। এভাবে জার্মানিকে গৃহযুদ্ধের মুখে ঠেলে দিলে বর্তমান চ্যান্সেলর এঙ্গেলা মার্কেল ক্ষমতাচ্যুত হবেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তাদের এই পরিকল্পনা ভেস্তে গেছে গোষ্ঠীটির মধ্যে ছদ্মবেশে থাকা এক ব্যক্তির কারণে। ওই ব্যক্তি বর্ণবাদী সেজে দলটিতে অনুপ্রবেশ করেন এবং হামলার ঠিক আগে পুলিশের কাছে চক্রান্ত ফাঁস করে দেন।

এদিকে, জার্মানির সর্বোচ্চ আদালত বিস্তারিত তদন্ত শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত গ্রেপ্তার হওয়া অভিযুক্তদের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে।