advertisement
আপনি দেখছেন

কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরে ডায়মন্ড প্রিন্সেস নামে যে প্রমোদতরী ১৪ দিন ধরে কোয়ারেন্টিনে (বিচ্ছিন্ন করে রাখা) ছিল, সেখানকার প্রায় ৫০০ আরোহী ছাড়া পাচ্ছেন। ইতোমধ্যে তারা জাহাজ ছেড়ে চলে যাওয়া শুরু করেছেন।

japani ship coronavirus

জাহাজটির আরোহীদের মধ্যে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পর গত ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে সেটিকে পৃথক করে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল।

বিবিসি বলছে, বুধবার প্রমোদতরীটির পরিচালনা কর্তৃপক্ষ ও জাপানি কর্মকর্তারা ‘অল ক্লিয়ার’ ছাড়পত্র পাওয়া যাত্রীদের জাহাজ ছেড়ে নেমে আসার অনুমতি দেন।

খবরে বলা হয়েছে, জাহাজটির প্রায় ৫০০ আরোহী, যাদের শরীরে ভাইরাসটির অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি এবং অসুস্থতার কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি, তাদের জাহাজ থেকে নামার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বুধবার অনুমতি পাওয়ার পর থেকেই তারা নামতে শুরু করেছেন এবং সামনের দিনগুলোতে আরো অনেক নেমে আসবেন।

উল্লেখ্য, ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে ডায়মন্ড প্রিন্সেস থেকে হংকংয়ে নেমে যাওয়া ৮০ বছর বয়সী এক যাত্রী করোনাভাইসরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর প্রমোদতরীটিকে ইয়োকোহামা বন্দরে পৃথক অবস্থায় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তারপর থেকে জাহাজটির প্রায় তিন হাজার ৭০০ যাত্রীর মধ্যে অন্তত ৫৪২ জনের শরীরে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। ভয়াবহ এই এই ভাইরাসে ইতোমধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে মাত্র পাঁচজন চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে মারা যায়। আর চীনে মারা যাওয়াদের মধ্যে অধিকাংশই সেই উহানের বাসিন্দা।