advertisement
আপনি দেখছেন

জাপানের ইকোহামা বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা যাত্রীবাহী জাহাজ ডায়মন্ড প্রিন্সেসে করোনাভাইরাস আক্রান্ত দুই যাত্রী মারা গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তথ্যটি নিশ্চিত করেছে।

diamond princess corona effected

গত ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে জাহাজটি ইকোহামা বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে রাখা ছিল। এতে যাত্রী ও ক্রুসহ মোট ৩ হাজার ৭০০ জন অবস্থান করছিল। যাদের মধ্যে ৬২১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়।

জাপানি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে দুইজন মারা গেছেন। তাদের একজন ৮৭ বছর বয়সী এক পুরুষ ও আরেকজন ৮৪ বছর বয়সী এক নারী। তারা দুইজনই জাপানের নাগরিক। গত ১১ ফেব্রুয়ারি তাদের দুইজনকে জাহাজ থেকে নামিয়ে দেশটির একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, বৃহস্পতিবার জাহাজ থেকে আরো ৫০০ যাত্রীকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ১০০ জন অন্যান্য দেশের নাগরিক। তাদের বিশেষ ফ্লাইটে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। নামিয়ে আনা কারো শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। এর আগে ভাইরাস শনাক্ত না হওয়ায় ৫০০ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

জাহাজে আরো কতজন অবশিষ্ট আছে এবং তাদের সেখান থেকে কবে নাগাদ বের করে আনা হবে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এ ‍নিয়ে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২১১৫ জন। এর মধ্যে চীনের বাইরে মাত্র ১১ জনের মৃত্যু হলো। এর মধ্যে জাপানে চারজন, হংকং  ও ইরানে দুইজন করে এবং তাইওয়ান, ফ্রান্স ও ফিলিপাইনে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন আরো ৩৪৯ জন। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ছাড়ালো। তবে আগের দিনের তুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কমেছে।

sheikh mujib 2020