advertisement
আপনি দেখছেন

নয় বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান শিশু কাডেন বেলস। জন্ম থেকেই বামন হওয়ায় শরীরের গঠন তেমন বাড়েনি। এ নিয়ে স্কুলের সহপাঠীরা তাকে বিভিন্নভাবে কটাক্ষ করে, ক্ষ্যাপায়। সেই জ্বালায় অভিমান করে এবার নিজের স্বেচ্ছামৃত্যু কামনা করলো শিশুটি।

kaden bels

সম্প্রতি তার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে অনবরত কাঁদতে দেখা যায় তাকে। এটি পোস্ট করেছেন তার মা ইয়াররাকা বেলস।

তিনি বলেন, ‘আমি মাত্রই ছেলেকে স্কুল থেকে নিয়ে এসেছি। আজকেও সে কটাক্ষের শিকার হয়েছে। প্রিন্সিপালকে ঘটনাটি জানিয়েছি। আর এখন সবাইকে জানাতে চাই, দেখুন- কটাক্ষের ফল কী। আমার ছেলে আর বাঁচতে চায় না। ’

বিবিসির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর কাডেনকে ডিজনিল্যান্ডে পাঠানোর জন্য ইন্টারনেটের মাধ্যমে তহবিল গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। গোফান্ডমি নামের একটি পেজে ইতোমধ্যে তিন লাখ ডলারের মতো অর্থ উঠেছে। আপাতত ১০ লাখ ডলার সংগ্রহ করার লক্ষ্য ঠিক করা হয়েছে।

এদিকে, এ ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বিভিন্ন শেণী-পেশার মানুষ। এক ভিডিও বার্তায় শিশু কাডেনকে সান্ত্বনা দিয়ে অভিনেতা হিউ জ্যাকম্যান বলেন, ‘কাডেন, তুমি অন্য সবার চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী।’

পরবর্তীতে এক সংবাদ সম্মেলনে কাডেনের মা ইয়াররাকা বলেন, বৈষম্য ও বর্ণবাদের কারণে প্রতিদিন আমরা স্বজনদের হারাচ্ছি। মা-বাবার জন্য সন্তান হারানোর বেদনা সবচেয়ে কষ্টকর। এ থেকে মানুষকে সচেতনতার জন্যই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে।

sheikh mujib 2020