advertisement
আপনি দেখছেন

সিরিয়ার ইদলিব ইস্যুতে এবার রাশিয়াকে হুঁশিয়ারি দিলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান। তুরস্কের সেনাদের সামনে থেকে রাশিয়াকে সরে যেতে বলেন তিনি।

turkey president erdoan russia

শনিবার রাজধানী আঙ্কারায় বক্তব্য দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

সিরিয়ার ইদলিব পরিস্থিতি নিয়ে সৃষ্ট উত্তেজনার মধ্যে রাশিয়ার প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, তুর্কি সেনাদের সামনে থেকে সরে দাঁড়ান।

এরদোয়ান অভিযোগ করে বলেন, রাশিয়া সিরিয়ার ইদলিব পরিস্থিতিকে ব্যবহার করে তুরস্কের অভ্যন্তরে হস্তক্ষেপ করতে চায়। সিরিয়ার তেল সম্পদ বা দেশটির ভূখণ্ড দখল করার ইচ্ছা আঙ্কারার নেই; বরং তুরস্ক নিজের জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষা করতে চায় মাত্র। কিন্তু এ কাজে রাশিয়া প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।

প্রসঙ্গত, কয়েক দিন আগে সিরিয়ার সেনাবাহিনীর হামলায় ইদলিবে অন্তত ৩৩ তুর্কি সেনা নিহত হয়। প্রথমে স্বীকার না করলেও পরবর্তীতে বিষয়টি মেনে নেয় আঙ্কারা। এর পর তুরস্কের হামলায় অন্তত দুই শতাধিক সিরীয় সেনা নিহতের দাবি করা হয়।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, সিরিয়ার সরকার নয় বরং সেদেশের জনগণের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে দেশটিতে সেনা মোতায়েন করেছে আঙ্কারা। সুতরাং তার দেশের সেনারা সিরিয়া ত্যাগ করবে না।

উল্লেখ্য, সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরুর পর থেকে তাতে সমর্থন দিয়ে আসছে রাশিয়া। অন্যদিকে, সিরিয়া সরকার সমর্থিত কুর্দি গেরিলাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছে তুরস্ক। কারণ কুর্দিদের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করে আঙ্কারা।

সর্বশেষ সিরীয় হামলার ব্যাপারে রাশিয়ার বক্তব্য ছিল যে, তারা এর দায়দায়িত্ব নেবে না। আবার মস্কোর পক্ষ থেকে এও বলা হয় যে, সিরিয়া বিদ্রোহীদের মধ্যে মিশে না থাকলে তুর্কি সেনারা নিহত হতো না।

রাশিয়ার এমন বক্তব্যের পরই শনিবার ওই সব কথা বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

sheikh mujib 2020