advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের ঘটনায় নর্দমার ড্রেন থেকে আরো চার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৪৬ জনে। এদিকে, সহিংসতা বন্ধ হলেও লাশ উদ্ধারের ঘটনায় নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে পুরো শহরে।

dellhi dead body recoverdদিল্লিতে নর্দমা থেকে আরো ৪ লাশ উদ্ধার

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় উত্তর-পূর্ব দিল্লির গোকুলপুরী এলাকার দুটি ড্রেন থেকে তিনটি লাশ এবং শিব বিহারের অপর একটি ড্রেন থেকে আরো একটি লাশ উদ্ধার করা হয়।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, লাশ উদ্ধারের ঘটনায় নতুন করে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়তে পারে- এমন আশঙ্কায় পুরো শহরের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। পশ্চিম দিল্লির তিলকনগর ও রাজৌরি গার্ডেনে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মেট্রো স্টেশন বন্ধ করে দেয়া হয়। পশ্চিম উত্তমনগর, তুঘলকাবাদ, বদরপুর, সুরজমল স্টেডিয়াম, নাঙ্গলোই মেট্রো স্টেশনও সাময়িক বন্ধ থাকে।

ভয়াবহ পরিস্থিতির আশঙ্কায় শহরের দোকানপাট ও শপিংমলগুলো বন্ধ করে মানুষজন বাসায় ফিরে যায়। রাস্তাঘাট মুহূর্তের মধ্যে ফাঁকা হয়ে যায়। পুরো শহরে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারাও রাত জেগে পাহারা দেয়।

দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে রাস্তায় নেমে মাইকিং করা হয়েছে। জনগণকে গুজবে কান না দিতে অনুরোধ করেন তারা। আর উদ্ধারকৃত লাশের সঙ্গে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার কোনো সম্পর্ক আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে বলেও পুলিশের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

sheikh mujib 2020