advertisement
আপনি দেখছেন

চীনের বাইরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। এ ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার আতঙ্কে এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশে আত্মহত্যা, হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাওয়া, এমনকি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মতো ঘটনা ঘটেছে। তবে এবার লিথুয়ানিয়ায় করোনা আতঙ্কে ঘটেছে এক অদ্ভূত ঘটনা।

corona lithuania

দেশটিতে এক ব্যক্তি করোনা আতঙ্কে তার স্ত্রীকে বাথরুমে আটকে রেখেছেন। ওই ব্যক্তির ধারণা, তার স্ত্রী করোনা আক্রান্ত। কারণ, কিছুদিন আগেই তার স্ত্রী ইতালি থেকে আসা এক চীনা নারীর সঙ্গে দেখা করেছেন।

এদিকে, বাথরুমে আটকে রাখার পর ওই ব্যক্তির স্ত্রী ফোন করে পুলিশকে সব জানান। পরে পুলিশ সদস্যরা এসে তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন।

তবে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির দাবি, তিনি তার স্ত্রীকে কিছুক্ষণের জন্য বাথরুমে আটকে রেখেছেন এবং কীভাবে ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচা যায়, সে সম্পর্কে চিকিৎসকের কাছে পরামর্শ নিচ্ছিলেন।

অবশ্য পরবর্তীতে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিৎসকেরা জানান, ওই ব্যক্তির স্ত্রী করোনাভাইরাস আক্তান্ত হননি।

প্রসঙ্গত, ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়, দেশটিতে এখন পর্যন্ত মাত্র একজন কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

sheikh mujib 2020