advertisement
আপনি দেখছেন

দারিদ্র্যপীড়িত আফ্রিকার ১৪টি দেশ থেকে এখনো ঔপনিবেশিক আমলের কর আদায় করে যাচ্ছে ফ্রান্স! এসব কর আদায়ের জন্য দেশগুলোকে নানাভাবে বাধ্য করা হচ্ছে।

france is taxing the colonial period from african countries

প্রায় দুই শতাব্দী ধরে আফ্রিকা ও এশিয়াজুড়ে শাসন করেছে ফ্রান্স। এই দীর্ঘ সময়ে এসব অঞ্চলের উন্নতির জন্য কোনো পদক্ষেপ তারা গ্রহণ করেনি। মাত্র একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তৈরি করেছে নিজেদের তত্ত্বাবধানে। সেটি আফ্রিকায় নয়, তৎকালীন ইন্দোচীন বলে পরিচিত দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায়।

এদিকে, আফ্রিকার যেসব দেশ থেকে এখনো চীন কর আদায় করে যাচ্ছে সেসব দেশের শিক্ষার মান দেখলেই বুঝা যাবে, সেখানকার বর্তমান অবস্থা। এর মধ্যে ১০টি দেশ আছে যেখানে শিক্ষার হার বিশ্বে সবচেয়ে কম। দেশগুলোর মধ্যে বুর্কিনা ফাসোর শিক্ষার হার ২৬%, নাইজারে ২৯%, চাদে ৩৪%, সেনেগালে ৪২%, বেনিনে ৪০%, আইভরি কোস্টে ৪৯%, গায়ানায় ২৯%, মালিতে ২৩% উল্লেখযোগ্য।

এসব দেশে শিক্ষার নিম্নমানের অন্যতম কারণ হচ্ছে গৃহযুদ্ধ, রাজনৈতিক অস্থিরতা, গণহত্যা। এসব কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে ঔপনিবেশিক শক্তির প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ইন্ধনে।

দেশগুলো থেকে অবাধে প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণের সুযোগ পায় ফরাসি কোম্পানিগুলো। সেইসঙ্গে তারা সেখানকার মুদ্রামানও নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

কর আরোপের ক্ষেত্রে দেখা গেছে, ফ্রান্স প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে কর আরোপ করে রেখেছে। শিক্ষা, চিকিৎসা, ব্যবসা সবক্ষেত্রেই ঔপনিবেশিক আলমের মতো অতিরিক্ত কর জারি করা আছে।

sheikh mujib 2020