advertisement
আপনি দেখছেন

চীনে তাণ্ডব চালানোর পর একে একে বিশ্বের অন্তত ১০৭টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে মরণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। তার থেকে বাদ নেই দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েলও। দেশটির অন্তত ১২৬২ জন সেনাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। খবর জেরুজালেম পোস্ট।

corona in israel

তবে কোনো কোনো সূত্র বলছে, ইসরায়েলের ২১ সেনার দেহে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

জেরুজালেম পোস্ট বলছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে আইডিএফ বিভাগের অন্তত ১২৬২ সেনা সদস্যকে পৃথক করে রাখা (কোয়ারেইন্টাইন) হয়েছে। ওই সেনাদের ডিউটিতে যাওয়ার পরিবর্তে বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যেসব সেনাকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে, তাদের অনেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সফর করে এসেছেন। আবার অনেকে দেশেও ছিলেন, যারা আগে আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসেছেন।

গণমাধ্যমটি বলছে, এর আগে ইসরায়েলের ১৮৯ সেনাকে ১৪ দিনের জন্য বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল। তারা নির্ধারিত সময় শেষে এখন কাজে যোগা দিয়েছেন।

এদিকে, ভয়াবহ করোনাভাইরাস যেন ইসরায়েলে মহামারি আকারে ছড়াতে না পারে সেজন্য সতর্কতা হিসেবে চীন, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, স্পেন, অস্ট্রিয়া ও সুইজারল্যান্ডের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

চ্যানেল ১২-এর বরাত দিয়ে জেরুজালেম পোস্ট বলছে, ইতোমধ্যে ইসরায়েলে ৮০ হাজারের মতো মানুষ কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। আর ইসরায়েলি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউরোপের দেশগুলোর ওপর সতর্ক দৃষ্টি রাখা হচ্ছে, যাতে ওইসব দেশ থেকে করোনা আক্রান্ত কেউ প্রবেশ করতে না পারে।