advertisement
আপনি দেখছেন

চীনের ফুজিয়ান প্রদেশের কুয়ানঝৌ শহরে করোনা আক্রান্ত রোগীদের রাখা ৫ তলা একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার ধসে পড়ে ১০ জন নিহত হয়েছে। ধ্বংস্তূপের নিচে এখনো ২৩ আটকা আছে বলে জানায় বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

corona center collapses 10 dead

জানা যায়, স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম। কোয়ারেন্টাইন সেন্টারটি ধসে পড়ার সময় ভেতরে ৭০ জনের বেশি মানুষ ছিলেন। সেখান থেকে ৪৮ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। যাদের মধ্যে মৃত উদ্ধার করা হয়েছে ১০ জনকে।আর জীবিত ৩৮ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একাধিক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, চীনা উদ্ধারকর্মীরা ভবনের ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে হতাহতদের বের করে আনার চেষ্টা করছেন। উদ্ধার কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের দেড় শতাধিক কর্মী। ঘটনাস্থলে গেছেন চীনের সিনিয়র কর্মকর্তারা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, ধসে পড়া ভবনটি ছিল শিনজিয়া এক্সপ্রেস হোটেল। করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে ২০১৮ সালের জুনে চালু হওয়া হোটেলটি বিশেষায়িত হাসপাতালে রূপান্তরিত করা হয়। করোনা রোগীদের সেখানে কোয়ারেন্টাইনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হতো।

রয়টার্স জানায়, ভবস ধ্বসে পড়ায় এর মালিককে আটক করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, চীনে রোববার পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৮০ হাজার ৬৯৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৯৭ জনের। ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হওয়া হুবেই প্রদেশের উহানে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। ইতোমধ্যে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ১০৪টি দেশ ও অঞ্চলে।