advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতে মুসলিমদের ‘হত্যা’ নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নীরবতায় ক্ষুব্ধ পাকিস্তান। তাদের এ ভূমিকা দেশটিকে হতাশ করেছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি।

muslim killings in india pakistan angry at the silence of international society

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ভারতে মুসলিম হত্যা নিয়ে কোনো পদক্ষেপই নেয়নি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। তারা নীরব থেকে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের আশকারা দিচ্ছে।’

তিনি বলেন, ভারতে প্রকাশ্যে আইন লঙ্ঘন করে মুসলমান ও অন্যান্য ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে। এ মাত্রা অন্যদের থেকে মুসলমানদের ওপর বেশি। পশ্চিমা যেসব রাষ্ট্র ও সংগঠন মানবাধিকারের দাবিদার তারা এ বিষয়ে কোনো শব্দ করেনি।

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, বিজেপি সরকার যে নীতি গ্রহণ করেছে তাতে বিপজ্জনক মোড়ের দিকে ধাবিত হচ্ছে ভারত। এর শেষ হবে দেশটিতে অসংখ্য মুসলিম হত্যার মধ্য দিয়ে। কারণ দেশটির প্রধানমন্ত্রী নিজেই উগ্রবাদীত্বকে সমর্থন করেন।

কোরেশি বলেন, ভারতের এমন কার্যকলাপে আন্তর্জাতিক সমাজ নিশ্চুপ থাকায় একটি সবুজ সংকেতই পাচ্ছে বিজেপি সরকার। যার ফলে তারা আরো বেপরোয়া ও সুসংগঠিতভাবে মুসলমানদের ওপর হামলা চালাবে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ পাকিস্তান।

সম্প্রতি দিল্লির সহিংসতার বিষয়টি তুলে ধরে পাকিস্তানি মন্ত্রী বলেন, সেখানে সিএএ (সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন) আন্দোলন দমনের নামে উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা নৃশংসভাবে হামলা চালিয়েছে মুসলিমদের ওপর। ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের অধিকাংশই মুসলিম।

sheikh mujib 2020