advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস আতঙ্কে তিন হাজার বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সোমবার আদালতের নির্দেশে ওই সব বন্দিকে প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়। রাজ্যের মোট ৬০টি কারাগার থেকে ৩ মাসের জন্য ওই বন্দিদের মুক্তি দেওয়া হয়।

detainee freed in westbengal coronaভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের একটি কারাগার

স্থানীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, একে তো করোনা আতঙ্ক, তার সঙ্গে চলছে লকডাউন। তার জেরেই নাজেহাল আমজনতা। স্বস্তিতে নেই বন্দিরাও। সংক্রমণের আতঙ্কে উদ্বেগে তারা।

মাত্র কয়েকদিন আগেই ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে গেছে দমদম কারা সংশোধনাগারে। করোনা আতঙ্কে আদালতের কাজও বন্ধ। প্যারোলে মুক্তি নিয়ে বন্দিদের মধ্যে তৈরি হয় অসন্তোষ। আর তার থেকেই পুলিশ এবং বন্দিদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

খবরে বলা হয়েছে, সোমবার প্যারোলে মুক্তি পায় ২ হাজার ৫৯ জন বিচারাধীন বন্দি এবং ১ হাজার ১৭ জন সাজাপ্রাপ্ত আসামি। ৩ মাসের জন্য মুক্তি দেওয়া হয় তাদের। রাজ্যের প্রেসিডেন্সি জেল থেকে ছাড়া পেয়েছে সব থেকে বেশি। কমপক্ষে ৩০০ জনকে ছাড়া ওই জেল থেকে।

দমদম কারা সংশোধনাগার থেকে ১৫০ এবং বারুইপুর সংশোধনাগার থেকে ১০০ জন বন্দিকে ছাড়া হয়েছে। রাজ্যের জেলগুলিতে অশান্তির আশঙ্কা করেই দ্রুত প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হলো মনে করা হচ্ছে।

শুধু মুক্তি দেয়নি জেল কর্তৃপক্ষ। লকডাউনের কারণে গাড়ি-ঘোড়া বন্ধ থাকায় তাদের গাড়ি করে প্রথমে সংশ্লিষ্ট থানায় এবং সেখান থেকে সোজা বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।