advertisement
আপনি দেখছেন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো কারফিউ ও লকডাউন ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। এর ফলে যেসব প্রতিষ্ঠান ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে, সেসব প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সৌদি নাগরিকদের জন্য বিশেষ ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন দেশটির বাদশাহ সালমান। এ জন্য এক ডিক্রিতে বাদশাহ ২৪০ কোটি ডলার দেওয়ার কথা জানিয়েছেন। খবর আরব নিউজ।

saudi king coronaসৌদি আরবের বাদশাহ সালমান

খবরে বলা হয়েছে, বেকারদের জন্য গঠিত সোশ্যল ইন্স্যুরেন্সের তহবিল এ অর্থ ব্যয় করা হবে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বা কর্মচারী মাসিক  যে বেতন পান তার ৬০ শতাংশ হারে তিন মাস এ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। তবে কোনো ক্রমেই সেটা মাসিক ৯ হাজার রিয়ালের বেশি হবে না।

দেশটির অর্থমন্ত্রী এবং সোশ্যল ইন্স্যুরেন্সের বোর্ড অব ডিরেক্টরের চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ আল জাদান বলেন, সরকারে এই সুবিধা পেতে হলে তাকে শতভাগ সৌদি নাগরিক হতে হবে।

সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ক্ষতিপূরণের এই সময়ে কোনো কোম্পানি তাদের কর্মীকে কাজে যোগ দিতে বাধ্য করতে পারবে না। ১২ লাখ সৌদি নাগরিক এই ক্ষতিপূরণের আওতায় আসতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

বাদশাহর জারি করা ডিক্রিতে বলা হয়েছে, চলতি এপ্রিল মাস থেকেই সৌদি নাগরিকরা ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন করতে পারবেন এবং মে মাস থেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

এতে আরো বলা হয়, সরকারের দেওয়া ক্ষতিপূরণ সুবিধার মেয়াদ শেষ হওয়ার সাথে সাথে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলোকে তাদের কর্মীদের বেতন দেওয়া শুরু করতে হবে।

অন্যদিকে, যারা এই সুবিধার অন্তর্ভুক্ত হবে না- হোক তারা সৌদি কিংবা নন সৌদি- তাদের বেতন অব্যাহত রাখতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

সৌদি আরবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬৫ জনের দেহে প্রাণঘাতী করনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এর মধ্যে মদিনায় পাওয়া গেছে ৪৬ জন এবং মক্কা নগরীতে পাওয়া গেছে ৪৮ জন। মৃত্যু হয়েছে পাঁচ জনের।

মার্কিন গণনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত দুই হাজার ৩৯ জনের দেহে ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। মৃত্যুবরণ করেছে ২৫ জন