advertisement
আপনি দেখছেন

নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ভারতে চলছে লকডাউন। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ। চরম অভাবে তৈরি হচ্ছে হতাশা। সেসব থেকেই আত্মহত্যা করেছেন দেশটির এক দিনমজুর।

indian labourপ্রতীকী ছবি

গত রোববার ঘটনাটি ঘটে মালদায়। ৫৪ বছর বয়সী এক দিন মজুরের মরদেহ গাছে ঝুলে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

তার স্ত্রী জানান, দীর্ঘদিন হৃদরোগে ভুগছিলেন তার স্বামী। লকডাউনের কাজ করতে পারছিলেন না। যার কারণে প্রয়োজনীয় ওষুধ কেনার টাকা ছিল না।

স্থানীয়দের ধারণা, হতাশা ও অবসাদ থেকেই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

লকডাউনের কারণে দিনমজুর আত্মহত্যার তৃতীয় ঘটনা এটি ভারতে। এর আগে কলকাতার দুই দিনমজুর এ ঘটনা ঘটায়। পরিবারের অভাবের দুশ্চিন্তায় তারা এ পথ বেছে নেন বলে জানা গেছে। উভয়েই উত্তর কলকাতার ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেডের চুক্তিভুক্ত দিনমজুর ছিলেন।

মার্চে ভারতজুড়ে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সংকট নিরসনে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেন এবং প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে বারণ করেন তিনি।

ভারতে এখন পর্যন্ত চার হাজার ৮৫৮ জনের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। মৃত্যু হয়েছে ১৩৭ জনের।