advertisement
আপনি দেখছেন

এক সাম্প্রতিক সমীক্ষার ফল বলছে, করোনাভাইরাস মহামারীতে পৃথিবীজুড়ে আক্রান্ত হতে পারেন একশ কোটি মানুষ। ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি বলছে, এই আক্রান্ত হওয়া ঠেকানো যেতে পারে ব্যাপক আর্থিক ও মানসিক সহায়তার মাধ্যমে।

coronavirus situation of afghanistan is not good

প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, দুর্বল দেশগুলোর জন্য জরুরি আর্থিক সহায়তা দরকার। তারা উদাহরণ হিসেবে আফগানিস্তান ও সিরিয়ার কথা উল্লেখ করে বলেছে, ভাইরাসের ভয়ঙ্কর প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এই দুটি দেশের প্রচুর আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন।

তারা আরো বলেছে, সিরিয়া ও আফগানিস্তানের বর্তমান অবস্থা বিবেচনায় এটা বলা যায় যে, জরুরি সাহায্য পাওয়ার জন্য তাদের খুব সামান্য সময় বাকি আছে। এর মধ্যে যথাযথ সহায়তা না পেলে দেশ দুটিতে করোনাভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

জন হপকিনস ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলছেন, বর্তমান অবস্থা বিবেচনায় মনে হচ্ছে আরো অন্তত ৩০ লাখ লোক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন এবং তাদের মধ্যে অন্তত দুই লাখ লোকের মৃত্যু হতে পারে।

ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের ডাটা মডেল অনুসরণ করে বলেছে, সারা বিশ্বে অন্তত ৫০ কোটি থেকে ১০০ কোটি লোক আক্রান্ত হতে পারেন।

তারা আরো দাবি করেছে নানা রকম দ্বন্দে নিমজ্জিত ও অশৃঙ্খল দেশগুলোতে ৩০ লাখের মতো মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি আরো বলছে যে, জনসংখ্যার ঘনত্ব, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বাজে পরিস্থিতি এবং নানা দ্বন্দে-পূর্ণতা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়াতে ভূমিকা রাখতে পারে।

তাদের মতে, বেশির ভাগ উন্নয়নশীল দেশের সরকারি তথ্য মতে মৃত্যু হার ও আক্রান্তের হার কম। কিন্তু বাস্তবতা হলো সে সব দেশের সঠিক মৃত্যু ও আক্রান্ত আসলে অনেক বেশি।

প্রতিষ্ঠানটি বর্তমান পরিস্থিতিকে সব দেশের জন্য জেগে উঠার ডাক বলে অভিহিত করেছে। তারা বলেছে, দাতা গোষ্ঠিগুলো যাতে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে এবং দুর্বল ও আক্রান্ত দেশগুলোকে সহায়তা করার জন্য এগিয়ে আসে।

sheikh mujib 2020