advertisement
আপনি দেখছেন

দেশটির নাম দক্ষিণ সুদান। করোনাভাইরাস সে দেশের মন্ত্রীসভার জন্য যেন সাক্ষাৎ যমদূত হয়ে এসেছে। ১ লাখেরও কিছু বেশি জনসংখ্যার ওই দেশে মন্ত্রী আছেন ৩২ জন, তন্মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১০ জন! শুধু তাই নয়, আক্রান্ত হয়েছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট রিয়েক মাসার। প্রেসিডেন্ট সালভা কিরও আক্রান্ত হয়েছেন, এমন একটা গুজব ছড়িয়ে পড়লেও তা নাকচ করে দিয়েছে দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয়।

riek macharকরোনায় আক্রান্ত দক্ষিণ সুদানের ভাইস প্রেসিডেন্ট রিয়েক মাসার

দেশটিতে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট সালভা কির মন্ত্রিপরিষদের ১১ জন সদস্য নিয়ে একটি টাস্কফোর্স গঠন করেন। একে একে সেই টাস্কফোর্সের ১০ জন মন্ত্রী আক্রান্ত হয়েছেন। বাকি আছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী এলিজাবেথ একুয়েই উর। এমন পরিস্থিতিতে মন্ত্রিপরিষদের অন্যান্য সদস্যরা আইসোলেশনে চলে গেছেন। ফলাফল, পুরো মন্ত্রীপাড়া খালি!

দক্ষিণ সুদানের তথ্যমন্ত্রী এখনো করোনামুক্ত! তিনিই নিয়মিত বিরতিতে দেশের করোনা পরিস্থিতি গণমাধ্যমকে জানিয়ে আসছেন। তিনি বলেন- আমাদের প্রেসিডেন্ট সুস্থ আছেন, একটি মহল তার ব্যাপারে গুজব ছড়াচ্ছে।

অবাক করা বিষয় হল, যেখানে এখন পর্যন্ত দেশটির মোট করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা মাত্র ৫৬৩ জন, সেখানে ভাইস প্রেসিডেন্ট-মন্ত্রীসহ ১১ জন আক্রান্ত! তথ্যমন্ত্রী অবশ্য বলেছেন, টাস্কফোর্সের সদস্যরা মাঠ পর্যায়ে কাজ করতে গিয়েই সংক্রমিত হয়েছেন। এছাড়া দেশটিতে মহামারি এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের, আরোগ্য লাভ করেছেন ৬ জন।