advertisement
আপনি দেখছেন

যত দিন যাচ্ছে ভারতে করোনার তাণ্ডব যেন বেড়েই চলছে। পৃথিবীর অনেক দেশে যখন করোনার বিষয়ে সুখবর পাওয়া যাচ্ছে, ভারতে তখন প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। ফলে সংক্রমণ মোকাবেলার অংশ হিসেবে দেশটিতে লকডাউনের মেয়াদ আরো এক মাস বাড়ানো হয়েছে। তবে আস্তে আস্তে বিভিন্ন এলাকায় লকডাউন শিথিল করে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

india empty roads in lockdownলকডাউনে ভারতের রাস্তা

আজ শনিবার ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, ভারতের কনটেনমেন্ট জোনে লকডাউন চলবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। এ নিয়ে দেশটিতে দেশটিতে পঞ্চম মেয়াদে লকডাউন বাড়ানো হলো।

এর আগে চতুর্থ মেয়াদে ঘোষিত লকডাউন শেষ হবে আগামীকাল রোববার। দেশটিতে লকডাউন শুরু হয়েছিল  ২৫ মার্চ থেকে।

তবে ভারতীয় সরকার এবারের লকডউনে বেশ কিছু বিষয়ে ছাড় দিয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হলো- আগামী ৮ জুন থেকে ভারতের সব রাজ্যে খুলে দেয়া হবে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান।

এ ছাড়া আবাসিক হোটেল, রেস্তোরাঁ, শপিংমল এবং বারও খুলে দেয়া হবে। কনটেনমেন্ট এলাকা লকডাউনের আওতায় থাকবে। ভারতীয় প্রশাসন আরো জানিয়েছে, রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত যথারীতি কারফিউ থাকবে।

শুক্রবার পর্যন্ত ভারতে প্রায় ১ লাখ ৬৬ হাজার জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৭০৬ জনের।

সম্প্রতি বিশেষ ট্রেন ও ফ্লাইটে ভারতজুড়ে নাগরিকদের চলাচল এবং লকডাউনের কিছু বিধি-নিষেধ শিথিল করার পর করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যায়। অনেক রাজ্য আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারণ হিসেবে অন্য রাজ্য থেকে মানুষ আসাকেও দায়ী করছে।

sheikh mujib 2020