advertisement
আপনি দেখছেন

পাকিস্তানের তথ্য ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী জানিয়েছেন, দেশটি নিজস্ব পদ্ধতিতে ভেন্টিলেটর মেশিন বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ক্রমশ বাড়তে থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো বলে জানান তিনি।

ventilator machineভেন্টিলেটর মেশিন

এক টুইটে ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, পাকিস্তানে তৈরি ভেন্টিলেটর মেশিন শিগগিরই জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

আরব নিউজের বরাতে জানা যায়, পাকিস্তানি তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এমন সময় এই ঘোষণা এলো যখন দেশটিতে ভেন্টিলেটর মেশিনের চরম সঙ্কট দেখা দিয়েছে। সেখানকার বিভিন্ন হাসপাতালে আরো প্রায় ১ হাজার ৫০০ ভেন্টিলেটর অতীব জরুরি হয়ে পড়েছে। সরকারের পক্ষ থেকেও নানামুখী প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে, যাতে এই সঙ্কট মোকাবেলা করা যায়।

জানা যায়, পাকিস্তানের হাসপাতালগুলোতে মোট ভেন্টিলেটর আছে ১ হাজার ৫০৩টি। করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর তুলনায় যা নগণ্য। রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে এই মেশিনের তীব্র সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

pakistan science and technology minister fawad chaudhryপাকিস্তানের তথ্য ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী

প্রাণঘাতী ভাইরাসটির সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় গত মার্চে লকডাউন কার্যকর করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পরে মে মাসে সে লকডাউন তুলে দেন। এতে পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে পাকিস্তানে। সংক্রমণের হার ও মৃত্যুর সংখ্যা হু হু করে বাড়তে থাকে। পরিস্থিতি চলে যায় নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

গতকাল শনিবার পর্যন্ত দেশটির সরকারি হিসাব অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টা সময়ে নতুন করে আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে ৪ হাজার ৭২ জন। মারা গেছে ৮৩ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত সর্বমোট আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৩ হাজার মানুষ। মারা গেছে ৪ হাজার ১১৮ জন।

sheikh mujib 2020