advertisement
আপনি দেখছেন

আফ্রিকা মহাদেশের রাষ্ট্র সুদানের অপরাধ আইনে বড় রকমের পরিবর্তন এনে সংশোধন করা হয়েছে। নতুন আইন অনুযায়ী, এখন থেকে দেশটিতে কেউ ধর্মান্তরিত হলে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হবে না। তাছাড়া সুদানে বসবাসরত অমুসলিমরা এখন থেকে মদপান করতে পারবে।

sudanese abdalla hamdokসুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদক

ফাইভ পিলার্সের বরাতে জানা যায়, সংশোধিত এই আইনে সুদানে বড় রকমের পরিবর্তন এসেছে। এতে জনজীবনেও ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। নতুন আইনের জনসম্মুখে বেত্রাঘাতও বাতিল করা হয়েছে। তাছাড়া কোথাও ঘুরতে যেতে পুরুষের থেকে নারীর অনুমতির বিষয়টিও উঠে গেছে।

স্থানীয় এক টেলভশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে সুদানের আইনমন্ত্রী নাসেরেদিন আবদুলবারি বলেন, আমরা সংবিধানের ১২৬ ধারা বাতিল করেছি। এর কারণে দেশের অপরাধ আইনে বড় রকমের পরিবর্তন এসেছে এবং নাগরিকদের মধ্যে ধর্মীয় স্বাধীনতা কার্যকর হয়েছে। সবাই এখন আইনের সমান সুযোগ পাবে।

sudanese justice minister nasredeen abdulbariসুদানের আইনমন্ত্রী নাসেরেদিন আবদুলবারি

তিনি বলেন, এসব পরিবর্তন সুদানের নাগরিকদের মধ্যে সম-অধিকার নিশ্চিত করতেই করা হয়েছে। মানুষের মধ্যে বৈষম্য সৃষ্টি করে এমন সব ধারা আমরা সংবিধান থেকে বাতিল করেছি। মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়- এমন সব আইনই সুদান থেকে চলে গেছে। এখন থেকে এখানে মানুষ আরও সাচ্ছন্দে বসবাস করতে পারবে।

তিনি আরো বলেন, নতুন আইন অনুযায়ী নারীদের যৌনাঙ্গ কেটে ফেলা একটি গুরুতর অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী, সুদানে বসবাসরত ৩ শতাংশ মানুষ অমুসলিম। দেশটিতে ১৯৮৩ সালে সব রকম মদ্যজাত পণ্য নিষিদ্ধ করা হয়।

নতুন আইনে মদ্যজাত পণ্যের ওপর অমুসমিদের নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়া হয়েছে।

sheikh mujib 2020