advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দৌড়ে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আছে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির চলমান গবেষণা। তাদের প্রস্তুতকৃত নমুনা ভ্যাকসিন এবার ভারতে মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হবে। সোমাবার কার্যক্রম শুরু করার অনুমতি দিয়েছে দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

vaccine symbolic picture 08প্রতীকী ছবি

আনাদুলো এজেন্সির বরাতে জানা যায়, ভারতীয় প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউট দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কাছে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমতি চেয়েছিল। সোমবার তাদের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

অক্সফোর্ডের গবেষণার সঙ্গে ভারতের এই প্রতিষ্ঠান সরাসরি জড়িত। তারা আগেও ভ্যাকসিনটি নিয়ে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে কাজ করেছে। যুক্তরাজ্যে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হওয়ার কিছুদিন পর ভারতেও সে প্রক্রিয়া শুরু করার প্রস্তুতি নেয়া হয়। যুক্তরাজ্যে গবেষণাটি এখন মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের তৃতীয় ধাপে আছে। যা একটি ভ্যাকসিন গবেষণার শেষ ধাপ হিসেবে পরিগণিত হয়।

pandemic symbolic picture10

ভারতে এই ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমতি প্রাপ্তির পর দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক টুইটে জানায়, ওষুধ নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সেরাম ইনস্টিটিউটকে অনুমতি দিয়েছে। তারা এখন দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে মানবদেহে ভ্যাকসিনটির পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু করবে।

এ বিষয়ে সিরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান কর্মকর্তা আদার পুনাওয়ালা বলেন, আমরা অনুমতি পেয়েছি। শিগগির কাজ শুরু করবো। অক্সফোর্ডের এই গবেষণার সঙ্গে বিশ্বব্যাপী ৯টি প্রতিষ্ঠান যুক্ত রয়েছে। তাদের মধ্যে আমাদের একটি।

ভারতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটির সংক্রমণ কোনোভাবেই থামছে না। নতুন এক কেন্দ্রে পরিণত হতে যাচ্ছে দেশটি। হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৮ লাখ ৮ হাজার ১২৮ জনের দেহে ভাইরাসটির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। মৃত্যু হয়েছে ৩৮ হাজার ২০১ জনের।

sheikh mujib 2020