advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের রাজধানীতে বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবারের এ বিস্ফোরণে কয়েক শ লোক আহত হয়েছেন। সেইসঙ্গে শত শত বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভেঙে গেছে জানালার কাঁচ। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে, পুরো রাজধানী কেঁপে উঠে। এমনকি ১০ কিলোমিটার দূর থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

explosion bairut lebanonলেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

লেবাননের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হামাদ হাসানের বরাত দিয়ে আল জাজিরা বলছে, বৈরুত বন্দর এলাকার এ বিস্ফোরণে কয়েক শ মানুষ আহত হয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে বিস্ফোরণের কারণ জানা যায়নি। বার্তা সংস্থা রয়টার্স তাদের সূত্রের বরাত দিয়ে বলেছে, ধ্বংস্তূপের নিচ থেকে এ পর্যন্ত ১০টি মরদেহ বের করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণের কারণে ব্যাপক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। হেলিকপ্টার ওই এলাকার ওপর দিয়ে চক্কর দিচ্ছে আগুন নেভাতে। বন্দরে থাকা ইতালিয়ান জাহাজ ওরিয়েন্ট কুইনের ক্যাপ্টেন জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের ফলের তাদের জাহাজের কয়েকজন আহত হয়েছেন, তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

explosion bairut lebanon 2লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বিস্ফোরণে শত শত মানুষ আহত হয়েছে। বহু ঘর-বাড়ির জানালা ভেঙে পড়ে। আশপাশের লোকজন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছেন। এ ছাড়া টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে যে ফুটেজ দেখানো হচ্ছে, তাতে দেখা যায় বিস্তৃত এলাকাজুড়ে ধোঁয়ার কুণ্ডলী উঠছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি বলছে, এত বেশি লোক আহত হয়েছে যে, স্থানীয় হাসপাতালগুলো ভরে গেছে। আর এই বিস্ফোরণ এমন এক সময় ঘটলো যখন, দেশটিতে অর্থনৈতিক সংকট বিরাজ করছে এবং তা নিয়ে নানা আন্দোলন হচ্ছে। তাছাড়া আগামী শুক্রবার দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরি হত্যার বিচার হওয়ার কথা রয়েছে।

ইরানি গণমাধ্যম পার্সটুডে বলছে, একটি অসমর্থিত খবরে বলা হয়েছে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী সা’দ হারিরির (রফিক হারিরির ছেলে) বাসভবনের কাছে দ্বিতীয় দফা বিস্ফোরণ ঘটেছে। তবে সা’দ হারিরি অক্ষত আছেন বলে জানিয়েছে মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনবিসি।

sheikh mujib 2020