advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় এখনও ৬০ জনের খোঁজ মেলেনি। তাদের উদ্ধার করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালানো হচ্ছে। শনিবার এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানায় লেবাননের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

beirut explosion 010ধ্বংসস্তুপের নীচে আটকে পড়াদের উদ্ধার কার্যক্রম চলছে

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেলে বৈরুতে ভয়াবহ এক বিস্ফোরণ হয়। এতে ১৫৪ জনের মৃত্যু হয়। আহত হয়েছেন ৫ হাজারেরও বেশি মানুষ। বিস্ফোরণের শক ওয়েভ শহরের ঘর-বাড়ি ও প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে। গৃহহীন হয়ে পড়েছেন আড়াই লাখ মানুষ।

লেবাননের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, এখন পর্যন্ত বিস্ফোরণে ১৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ২৫ জনের কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি। তথ্য মোতাবেক, এখনো ৬০ জন নিখোঁজ আছেন। তাদের উদ্ধারের কার্যক্রম চলছে।

beirut explosion 02বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার দৃশ্য

বিস্ফোরণের কারণ উল্লেখ করে লেবননের প্রেসিডেন্ট মাইকেল ওন বলেন, সার ও আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহারে মজুদ রাখা ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটে আগুন লেগে যাওয়ায় এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। ৬ বছর ধরে এই রাসায়নিক উপাদানগুলো সেখানে মজুদ ছিল।

অর্থনৈতিক সঙ্কট, করোনাভাইরাস মহামারি ও সবশেষ বিস্ফোরণ- সবকিছু মিলিয়ে লেবানিজদের জনজীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে। পরিস্থিতি মোকাবেলার সামর্থ্যও তাদের নেই। তাই আন্তর্জাতিক সাহায্যের আবেদন করছেন তারা।

sheikh mujib 2020