advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে চলমান অন্দোলনের জেরে এবার পদত্যাগ করলেন দেশটির আইনমন্ত্রী মেরি-ক্লাউডি নাজম। সোমবার তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়ে নিজের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন। তার সঙ্গে লেবানন পার্লামেন্টের আরো ছয় সাংসদ পদত্যাগ করেছেন।

lebanon justice minist erলেবাননের আইনমন্ত্রী মেরি-ক্লাউডি নাজম

গত মঙ্গলবার বৈরুতে ভয়াবহ এক বিস্ফোরনের পর থেকেই দেশটিতে সরকার বিরোধী আন্দোলন জোরালো হয়। হাজার হাজার মানুষ বৈরুতের প্রাণকেন্দ্র শহীদ স্কয়ারে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এসময় তাদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এর জের ধরে গতকাল লেবাননের তথ্যমন্ত্রী মানাল আবদেল সামাদ ও পরিবেশমন্ত্রী দামিয়ানোস কাত্তার পদত্যাগ করেছেন।

তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার মেরি-ক্লাউডি নাজমসহ লেবানন পার্লামেন্টের ৬ সদস্য পদত্যাগ করলেন।

lebanon information ministerলেবাননের তথ্যমন্ত্রী মানাল আবদেল সামাদ

সম্প্রতি বৈরুতের এক গোডাউনে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটে আগুন লাগায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ সংগঠিত হয়। এতে প্রাণ হারায় ১৫৮ জন। আহত হয়েছে ৬ হাজারেরও অধিক মানুষ। গৃহহীন অবস্থায় দিনযাপন করছে ৩ লাখ মানুষ। মার্কিন ভূ-বিজ্ঞান অধিদপ্তরের মতে, বিস্ফোরণটি এতই শক্তিশালী ছিলো যে, ৩ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্পের সৃষ্টি করেছে। সেই কম্পন বৈরুত থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরে সাইপ্রাসেও অনুভূত হয়।

ব্রিটিশ একদল গবেষক দাবি করছেন, ভয়াবহ এই বিস্ফোরণে বৈরুতে ৪৩ মিটারের একটি গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। পারমাণবিক বোমা ছাড়া অন্য কোনো বিস্ফোরণে এতো বড় গর্ত সমসাময়িক ইতিহাসে আর হয়নি।

অর্থনৈতিক সঙ্কট, করোনাভাইরাস মহামারি ও সরকারের দুর্নীতি- এসব নিয়ে টালমাটাল হয়ে আছে লেবানন। এর মাঝে ভয়াবহ বিস্ফোরণ যেন ‘কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা’ হয়ে এসেছে। লেবানিজ সরকার বিস্ফোরণ পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ব্যর্থ হওয়ায় আন্দোলন শুরু করে সাধারণ মানুষ।

sheikh mujib 2020