advertisement
আপনি দেখছেন

গত বছরের ৫ আগস্ট ভারতের মোদি সরকার কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে পার্লামেন্টে বিল পাস করে। শুরু থেকেই এর প্রতিবাদে সরব ছিল পাকিস্তান। বিষয়টিকে জাতিসংঘ পর্যন্ত নিয়ে গেছে ইসলামাবাদ।

ajit doval indian nsaঅজিত দোভাল

শুধু তাই নয়, এ বছর কাশ্মিরের সেই বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেওয়ার বর্ষপূর্তিতে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। নতুন মানচিত্রে পুরো কাশ্মিরের পাশাপাশি ভারতের গুজরাটের জুনাগড়কেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলে নয়াদিল্লি দাবি করছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে অনুষ্ঠিত সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের বৈঠকে পাকিস্তানি প্রতিনিধি সেই নতুন মানচিত্র প্রদর্শন করেন। এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে মাঝপথে বৈঠক থেকে বেরিয়ে যান ভারতীয় প্রতিনিধি।

pakistan nsa in shanghi summitঅনলাইন বৈঠকে যোগ পাকিস্তানি প্রতিনিধিরা

জানা যায়, এদিন সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের সদস্য দেশগুলোর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের (এনএসএ) বৈঠকে এই ঘটনা ঘটে। বৈঠকে পাকিস্তানি প্রতিনিধি মো. ইউসুফ দেশটির নয়া মানচিত্র প্রদর্শন করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বেরিয়ে যান ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা (এনএসএ) অজিত দোভাল।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অভিযোগের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈঠকের আয়োজক দেশ রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা এদিন পাকিস্তানকে ওই নতুন মানচিত্র উপস্থাপন না করার জন্য বার বার অনুরোধ করেন। কিন্তু সে অনুরোধ উপেক্ষা করেই পাকিস্তানি জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা তা প্রদর্শন করেন। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসলামাবাদের এমন পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে নয়াদিল্লি। ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের এনএসএ ইচ্ছাকৃতভাবে একটি কল্পিত মানচিত্র বৈঠকে প্রদর্শন করেছেন। ওই মানচিত্র নিয়ে ইদানিং পাকিস্তান প্রচার চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব এ ব্যাপারে বলেছেন, এর মাধ্যমে আমন্ত্রক দেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে নির্লজ্জভাবে অবজ্ঞা করা হয়েছে। সেইসঙ্গে পাকিস্তানের এমন পদক্ষেপে বৈঠকের বিধিরও লঙ্ঘন হয়েছে।

তবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জাতীয় নিরাপত্তা সম্পর্কিত বিশেষ সহকারী মইদ ইউসুফ টুইটারে বিষয়টি নিয়ে বলেছেন, বিষয়টি খুব ‘দৃষ্টিকটূ’ মনে হলো। কারণ ভারতীয় প্রতিনিধি বৈঠক থেকে উঠে চলে গেলেন। এ ধরনের বৈঠক একে অপরের মধ্যে যোগসূত্র বৃদ্ধি করার জন্য বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

sheikh mujib 2020