advertisement
আপনি দেখছেন

ফিলিস্তিন ও আরব ভূমিতে অব্যাহত দখলদারিত্বের পরও ইসরায়েলের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি। মঙ্গলবার জাতিসংঘের ৭৫তম সাধারণ অধিবেশনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

qatar amir newকাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি

ভার্চুয়াল এই অধিবেশনে কাতারের আমির বলেন, ফিলিস্তিনের অঞ্চলগুলোতে ইসরায়েলি দখল এবং অবৈধ বসতি স্থাপন এখনো অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু তাদের অবৈধভাবে ভূমি দখলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় জাতিসংঘের প্রস্তাবগুলো রাখতে ব্যর্থ হয়েছে।

আন্তর্জাতিক রেজুলেশন এবং দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধানের নীতি লঙ্ঘন করার জন্য সম্মিলিতভাবে দায়ী ইসরায়েল উল্লেখ করে তিনি বলেন, কেবল তখনই শান্তি অর্জন করা সম্ভব, যখন আরব দেশগুলো দ্বারা গৃহীত আন্তর্জাতিক রেফারেন্স এবং রেজুলেশনের শর্তগুলো (২০০২ সালের আরব শান্তি উদ্যোগ) সম্পর্কে ইসরায়েল সম্পূর্ণরূপে অঙ্গীকারাবদ্ধ হবে।

un logoজাতিসংঘের লোগো

২০০২ সালের আরব শান্তি চুক্তির আওতায়, আরব দেশগুলো ঘোষণা করেছিল যে, ১৯৬৭ সালের সীমান্তের ভিত্তিতে পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী রেখে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে রাষ্ট্রীয়তার চুক্তির বিনিময়ে ইসরায়েল কেবল সম্পর্ক স্বাভাবিককরণ অর্জন করতে পারবে। পাশাপাশি ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য ন্যায়সঙ্গত সমাধান এবং অবৈধ দখল বন্ধ করতে হবে।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিশেষ করে জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলকে তার আইনি দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি বলেন, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের অবরোধ বন্ধ করা এবং আন্তর্জাতিক রেজুলেশনের ওপর ভিত্তি করে বিশ্বাসযোগ্য আলোচনার মাধ্যমে শান্তি প্রক্রিয়াটিকে আবারও এগিয়ে নিতে হবে।

sheikh mujib 2020