advertisement
আপনি দেখছেন

বিশ্বে এক দেশের ব্যাপারে অন্য দেশের হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায়। এমনই একটি অভিযোগ ছিল যে, ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছিল রাশিয়া। আগামী ৩ নভেম্বর ফের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ফলে আবারো এ ধরনের হস্তক্ষেপের আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

vladimir Putinভ্লাদিমির পুতিন

এমনই অবস্থায় একে অন্যের ব্যাপারে যাতে হস্তক্ষেপ করতে না পারে সেজন্য যুক্তরাষ্ট্রকে চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

ক্রেমলিনের এক বিবৃতিতে গতকাল শুক্রবার বলা হয়, প্রেসিডেন্ট পুতিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একে অন্য দেশের নির্বাচন বা অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ এড়াতে চুক্তির প্রস্তাব করেছেনI

CIA logoমার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার লোগো

বিবৃতিতে এই হস্তক্ষেপকে ‘ডিজিটাল যুগে বৃহৎ এক ঝুঁকি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভয়েস অব আমেরিকা।

এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে মার্কিন জাতীয় গোয়েন্দা দপ্তর থেকে আসন্ন নির্বাচনে সম্ভব্য ঝুঁকির কথা উল্লেখ করা হয়। রাশিয়া, চীন, ইরান ও অন্যান্য কয়েকটি দেশের ব্যাপারে এই শঙ্কা প্রকাশ করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের সত্যতা স্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা দপ্তর।

sheikh mujib 2020