advertisement
আপনি দেখছেন

কোভিড-১৯ আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বর্তমান শারীরিক অবস্থা ভালো। সেইসঙ্গে তার অবস্থার উন্নতিও হচ্ছে। আর এ অবস্থা অব্যাহত থাকলে সোমবারই তিনি হোয়াইট হাউসে ফিরতে পারেন। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে মার্কিন ও ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলো এ খবর দিয়েছে।

trump in mariland hospitalম্যারিল্যান্ডের সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ট্রাম্পের কাজ করার এই ছবি শনিবার প্রকাশ করে হোয়াইট হাউস

বর্তমানে ম্যারিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেখানে তার চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসকরা রোববার বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থার ক্রমাগত উন্নতি হচ্ছে। এ অবস্থা বজায় থাকলে সোমবারই তিনি হোয়াইট হাউসে ফিরতে পারবেন। সেখান থেকে তিনি বাকি চিকিৎসা নিতে পারবেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ওয়াল্টার রিড সামরিক হাসপাতালের বাইরে রোববার ট্রাম্পের চিকিৎসার নেতৃত্বে থাকা ডা. সীন ডুলে সাংবাদিকদের বলেন, ‘রোগীর ক্রমাগত উন্নতি হচ্ছে। শুক্রবার সকাল থেকে তার জ্বর নেই। তার অন্যান্য অবস্থাও স্থিতিশীল।’

trump and melania usaস্ত্রী মেলানিয়ার সঙ্গে ট্রাম্প

অন্যদিকে, সিবিএস নিউজ জানিয়েছে, জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক ড. ব্রায়ান গারিবাদি রোববার সাংবাদিকদের বলেন, তিনি (ট্রাম্প) যে রকম সুস্থতা অনুভব করছেন, তাতে আমরা আশা করছি যে, এই অবস্থা চলতে থাকলে তিনি হোয়াইট হাউসে ফিরে অবশিষ্ট চিকিৎসা নিতে পারবেন।

এর আগে শনিবার রাতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোস জানান, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা শুক্রবার গুরুতর ছিলো।

মার্ক মিডোস বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের শারীরিক অবস্থা নিয়ে গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে যে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছিল, বাস্তবে তেমনটা ছিলো না। ওইদিন তার শারীরিক অবস্থা গুরুতর ছিল। তার জ্বর ও শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে গিয়েছিল। রক্তে কমে গিয়েছিল অক্সিজেনের মাত্রা।

পরে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে চিকিৎসকদের পরামর্শে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয় জানিয়ে তিনি আরো বলেন, শনিবার সকালেও ট্রাম্পের শরীরে জ্বর ছিলো। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রাও কম ছিল। তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিকিৎসকসহ সবাই উদ্বিগ্ন ছিল। তবে সকালের পর থেকে তার অবস্থার উন্নতি ঘটে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে ডোনাল্ড ট্রাম্পের শরীরে জ্বর নেই। তিনি স্বাভাবিকভাবেই চলাফেরা করছেন।

এর আগে গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা ভালো রয়েছে। তার শরীরে করোনার মৃদু সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। কোনো ধরনের সমস্যা যাতে সৃষ্টি না হয়, এ জন্য তাকে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে।

গত শুক্রবার টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই।

তিনি বলেন, তার এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর তিনি এবং তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প কোয়ারেন্টাইনে চলে গেছেন এবং করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন। পরীক্ষায় তাদের দুজনের কোভিড-১৯ পজিটিভ এসেছে।

পরে ওইদিন বিকেলে ট্রাম্পকে মেরিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি করা হয়। তারা শরীরে করোনার মৃদু উপসর্গ দেখা দিয়েছে। তাই তাকে সতর্কতা হিসেবে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানায় মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন।

sheikh mujib 2020