advertisement
আপনি দেখছেন

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হটাতে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বড় ধরনের বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার নারী। গতকাল শনিবার দেশটির রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিসহ অন্তত ৫০টি বড় শহরে এ বিক্ষোভ হয়েছে। এ ঘটনাকে নজিরবিহীন ঘটনা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

womens protests across in usaযুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পবিরোধী নারী বিক্ষোভ

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে রক্ষণশীল বিচারপতি মনোনীত করার ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ এবং ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তাকে পরাজিত করতে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

২০১৭ সালে ট্রাম্প শপথ নেয়ার পর তার বিরুদ্ধে এই ওয়াশিংটনে প্রথম বড় ধরনের ‘ওমেন্স মার্চ’ হয়েছিল। তা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নারীরা রাস্তায় নেমে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান শনিবার।

ওয়াশিংটন ডিসির ফ্রিডম প্লাজার সামনে জড়ো হওয়া জনতার উদ্দেশে ওমেন্স মার্চের নির্বাহী পরিচালক র‌্যাচেল ও’লিয়ারি বলেন, এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নারীদের ভোট দিতে হবে। নারীরা একত্রিত হলে, রাস্তায় নামলে, ভোট দিলে যুক্তরাষ্ট্রে এককভাবে সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক শক্তি হয়ে উঠেন নারীরা। ট্রাম্প আমাদের থামাতে পারেন, এমন কোনো কিছু নেই।

womens protests across in usaযুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পবিরোধী নারী বিক্ষোভ

এ বিক্ষোভ থেকে মার্কিন নারী প্রগতির আইকন হিসেবে পরিচিত গত ১৮ সেপ্টেম্বর মারা যাওয়া দেশটির সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রুথ ব্যাডার গিন্সবার্গের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। তার স্থলে রক্ষণশীল বিচারক এমি কোনি ব্যারেটকে মনোনীত করায় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নামেন নারীরা।

এদিকে, ব্যারেটকে মনোনীত করার বিষয়ে ঘোরতর আপত্তি তুলেছে ডেমোক্রেটরা। ফলে আগামী ২২ অক্টোবর সিনেট জুডিশিয়ারি কমিটিতে তার বিষয়ে ভোটাভোটি হওয়ার কথা রয়েছে। একইভাবে ২০১৬ সালের নির্বাচনের ৬ মাস আগে মেরিক গারল্যান্ডকে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মনোনয়ন দিলেও আপত্তি তোলেন রিপাবলিকানরা।

sheikh mujib 2020