advertisement
আপনি দেখছেন

বিভিন্ন ইস্যুকে কেন্দ্র করে সাম্প্রতিক সময়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁনের মধ্যে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। আর সেই সম্পর্ক আরো খারাপ হয়েছে মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) কে অবমাননা ও ফ্রান্স সরকার কর্তৃক ইসলাম বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে।

erdoan with macronতুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁন

অবস্থা এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে যে, এবার তুর্কি প্রেসিডেন্টের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করার ঘোষণা দিয়েছে মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) কে নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশকারী ফ্রান্সের সেই বহুল বিতর্কিত ম্যাগাজিন শার্লি এবদো। পরবর্তী সংখ্যায় এটি প্রকাশ করা হবে বলে এক টুইট বার্তায় তারা জানিয়েছে। ইতোমধ্যে কার্টুনটির একটি প্রতিচ্ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে।

সেখানে দেখা যায়, এরদোয়ান একটি চেয়ারে বসে আছেন এবং তিনি তার পোশাক উপরে তুলছেন। তার সামনে পেছন দিয়ে দাঁড়ানো একজন নারী। ক্যাপশনে লেখা, 'এরদোয়ান- হি ইজ এ লট অব ফান ইন প্রাইভেট।' আগামী বুধবার ম্যাগাজিনটির পরবর্তী সংখ্যা প্রকাশ হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁনের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে সম্প্রতি প্রশ্ন তোলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। একই সঙ্গে ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে এবার আঙ্কারার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে প্যারিস।

charlie hebdoবিতর্কিত ম্যাগাজিন শার্লি এবদো

ফ্রান্সের বাণিজ্যমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক রেইস্টার আইনপ্রণেতাদের বলেছেন, ফ্রান্স ও ইউরোপ একতাবদ্ধ আছে। ইইউ কাউন্সিলের পরবর্তী সামিটে তুরস্ক ও ইউরোপের মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্যকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। সে জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।

অন্যদিকে, ম্যাক্রোঁনের মন্তব্যের নিন্দা জানিয়েছে তুরস্কের পার্লামেন্ট, ক্ষমতাসীন একে পার্টি, তাদের মিত্র ন্যাশনালিস্ট মুভমেন্ট (এমএইচপি), ধর্মনিরপেক্ষ প্রধান বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি) এবং আইভি পার্টি।

এক যৌথ ঘোষণায় তারা বলেছে, ফরাসি প্রেসিডেন্টের মন্তব্য বিভিন্ন ধর্মবিশ্বাসের মানুষদের মধ্যে আঘাত করেছে। ম্যাক্রোঁন মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে সমর্থন দেয়ার মাধ্যমে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। এর মাধ্যমে তিনি সংঘাতকে আরো উস্কে দিচ্ছেন।

sheikh mujib 2020