advertisement
আপনি দেখছেন

সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্ক ও সৌদি আরবের মধ্যকার সম্পর্ক নিয়ে মুসলিম বিশ্বে বেশ আলোচনা চলছে। তাদের মধ্যে সম্পর্ক যে অবনতির দিকে, তা এক প্রকার স্পষ্ট। তবে সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ।

soudi fm faisal bin farhanসৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ

শনিবার রিয়াদে শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী জি-২০ সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে তিনি জানান, তুরস্কের সঙ্গে সৌদি আরবের ভালো এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। এমনকি অনানুষ্ঠানিকভাবে সৌদি সরকার তুর্কি পণ্য বয়কটেরও কোনো প্রচারণা চালাচ্ছে না।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, মুসলিম বিশ্বের দুই প্রধান শক্তির রাজনৈতিক রেষারেষির ধাক্কা এখন বাণিজ্য সম্পর্কের ওপরও লেগেছে। এরদোয়ান সরকারকে শায়েস্তা করতে সৌদি আরব তুর্কি বাজার বন্ধের কৌশল নিয়েছে বলেও শোনা যায়।

turkey soudi flag

আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, রিয়াদে জি-২০ সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে তুরস্ক যোগ দেয়ার পর সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী তুর্কি পণ্য বয়কট ও তাদের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে এমন মন্তব্য করেন।

অবশ্য গত অক্টোবর থেকেই সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে তুর্কি পণ্য বর্জনের দাবি জানানো হচ্ছে। এমনকি প্রকাশ্যে এমন ক্যাম্পেইনের নেতৃত্ব দিচ্ছে সৌদি আরবের শীর্ষ এবং সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যবসায়ী সমিতি রিয়াদ চেম্বার অব কমার্স।

অন্যদিকে, সৌদি কর্তৃপক্ষ তুর্কি পণ্য বর্জনের বিষয়টি অস্বীকার করেছে। তবে সাংবাদিক, পর্যবেক্ষক এবং তুর্কি ব্যবসায়ী মহলের দাবি, সৌদি সরকারের নেপথ্যেই পণ্য বয়কটের ক্যাম্পেইন দেশটিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।

sheikh mujib 2020