advertisement
আপনি দেখছেন

শনিবার ছিল নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৪তম জন্মবার্ষিকী। এ উপলক্ষে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতার ভিক্টোরিয়ায় এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তবে মমতা বক্তব্য দিতে গেলেই ঘটে বিপত্তি।

modi and mamata kolkataমোদি বসা, ক্ষোভে মঞ্চ ছাড়লেন মমতা

জানা যায়, সংগীতানুষ্ঠানের পরই মঞ্চে বক্তব্য দিতে আমন্ত্রণ জানানো হয় মমতাকে। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী যখন মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছিলেন, তখন অনুষ্ঠানের দর্শক সারিতে থাকা লোকজনের মধ্য থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দেওয়া হয়। এই স্লোগান শুনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান এবং রেগে মঞ্চ ছাড়েন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ সময় মঞ্চে বসা ছিলেন নরেন্দ্র মোদি।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, মাইকের সামনে দাঁড়িয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, এটা কোনো রাজনৈতিক মঞ্চ নয়। এটা সরকারি অনুষ্ঠান। আমন্ত্রণ জানিয়ে এভাবে বেইজ্জত করা উচিত নয় আমি মনে করি। আমি আর একটি কথাও বলব না। তবে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে আমি ধন্যবাদ জানাই যে, কলকাতায় এই অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে। এর পরই মঞ্চ থেকে নেমে যান তৃণমূল নেত্রী।

mamata adressing present modiমমতার বক্তব্যের সময় জয় শ্রীরাম স্লোগান দিলে রেগে যান তিনি

মমতার চলে যাওয়ার পরই বক্তব্য দিতে আসেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময়ও দর্শক বা তার সমর্থকরা একইভাবে জয় শ্রীরাম স্লোগান দেন। অবশ্য সঙ্গে সঙ্গে জয় হিন্দ বলে পরিস্থিতি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেন তিনি। তবে মোদি তার বক্তব্যে মমতার চলে যাওয়া প্রসঙ্গে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাননি। বরং তিনি তার বক্তব্যে বার বার বাংলা ও বাংলার মনীষীদের ঢালাওভাবে প্রশংসা করেন।

জানা যায়, এর আগে সরকারি সফর সূচির বাইরে নরেন্দ্র মোদি নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর বাড়ি নেতাজি ভবনে যান। এর পর কলকাতার ন্যাশনাল লাইব্রেরির এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে যান।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন মন্ত্রী সম্প্রতি পদত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দেন। আগামী নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতা মসনদে বসতে উঠেপড়ে লেগেছে বিজেপি। এর কিছু দিন আগে বিজেপি নেতা এবং দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কলকাতা সফর করে গেছেন। তাছাড়া কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতারা এখন সব সময় পশ্চিমবঙ্গের মানুষের মন জয় করতে সেখানকার মনীষী ও বিখ্যাত ব্যক্তিদের নাম নিচ্ছেন।

sheikh mujib 2020