advertisement
আপনি দেখছেন

হলিউডের সিনেমার মতো অ্যাটাক হেলিকপ্টারের সামনে সদর্পে দাঁড়িয়ে থাকা এই সুন্দরীকে দেখতে নায়িকা মনে হবে যে কারো। কিন্তু বাস্তবে ঠিক তার উল্টো ঘটনা, ইতিহাস সৃষ্টিকারী এক নারী।

turkish pilot in attack helicopterঅ্যাটাক হেলিকপ্টারের সামনে ওজগি কারাবুলুত

ইয়েনি শাফাক জানায়, তার নাম ওজগি কারাবুলুত। তুরস্কের অ্যাটাক হেলিকপ্টারের প্রথম নারী পাইলট তিনি। দেশটিতে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন ২৮ বছর বয়সী কারাবুলুত।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় প্রশিক্ষণ শেষে ডেপুটি পাইলট কমিশনার পদে যোগ দিয়েছেন কারাবুলুত। কাজ করছেন পুলিশ এভিয়েশন বিভাগের অধীনে। তাকে নিয়ে বেশ খুশি সহকর্মীরা।

খবরে বলা হয়, পুলিশের বহরে অ্যাটাক হেলিকপ্টার যুক্ত হওয়ার পর দায়িত্ব পালন শুরু করেন কারাবুলুত। হেলিকপ্টার চালানোর পরীক্ষায় সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি।

turkish pilot in attack helicopter 1ওজগি কারাবুলুত

ডেইলি সাবাহ জানায়, যে হেলিকপ্টারটির সামনে দাঁড়িয়ে ছবির পোজ দিয়েছেন কারাবুলুত, সেটির ককপিটে বসেই প্রশিক্ষণ নেন তিনি। ৯ সপ্তাহের এই প্রশিক্ষণ শেষে কারাবুলুত বলেন, অ্যাটাক হেলিকপ্টারের পাইলট হতে পেরে আমি খুব গর্বিত।

কারাবুলুতের এই সাফল্যের খবর ফলাও করে প্রকাশ করেছে তুরস্কের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। সামাজিকমাধ্যমেও তাকে নিয়ে মেতেছেন তুর্কিরা, প্রশংসায় ভাসছেন কারাবুলুত।