advertisement
আপনি দেখছেন

ফ্রান্সের তৈরি ৩০টি রাফায়েল যুদ্ধবিমান কিনতে ৪৫০ কোটি ডলারের চুক্তি করেছে মিশর। আজ মঙ্গলবার (৪ মে) দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

raphael warplanes

পার্সটুডে জানায়, মিশরের বিবৃতিতে যুদ্ধবিমানের সংখ্যা উল্লেখ করা হলেও তার দাম জানানো হয়নি। তবে অনুসন্ধানী ওয়েবসাইট ‘ডিসক্লোজ’ বলছে, চুক্তিটি ৩৭৫ কোটি ইউরোর (৪৫০ কোটি ডলার)।

মিশরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, যুদ্ধবিমানের মূল্য আগামী ১০ বছরের মধ্যে পরিশোধ করা হবে প্যারিসকে। বিমানগুলো হস্তান্তরের দিনক্ষণের বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

এদিকে, মিশরের সঙ্গে ফ্রান্সের রাফায়েল বিক্রির চুক্তি গত এপ্রিলের শেষ দিকে চূড়ান্ত হয়েছিল বলে জানিয়েছে ডিসক্লোজ। মিশরীয় প্রতিনিধিদল প্যারিস সফরে গেলে সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে সই হয় গতকাল সোমবার (৩ মে)।

এর আগে গত ডিসেম্বরে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছিলেন, যুদ্ধবিমান বিক্রির বিষয়টি মিশরের মানবাধিকার লঙ্ঘনের সঙ্গে মেলাতে চান না তিনি। এতে উত্তর আফ্রিকায় সন্ত্রাস-বিরোধী যুদ্ধ দুর্বল হয়ে পড়তে পারে।

macron sisi

মানবাধিকার সংগঠনগুলো অভিযোগ করে আসছে, মিশরে গণতান্ত্রিক সরকার উৎক্ষাত করে স্বৈরশাসন চালু করেছেন একনায়ক আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি। বিরোধী দলগুলোর ওপর কঠোর দমন-পীড়ন চালাচ্ছেন তিনি।

এমতাবস্থায় মিশরের প্রধান সমরাস্ত্র সরবরাহকারী দেশ ফ্রান্স বিষয়টি দেখেও না দেখার ভান করছে। ম্যাক্রোঁর যুদ্ধবিমান বিক্রির এই চুক্তি তার সর্বশেষ উদাহরণ, বলছেন সমালোচকরা।

সম্প্রতি ফ্রান্সে ইসলাম ধর্ম এবং মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা.) এর অবমাননার ঘটনায় পুরো মুসলিম বিশ্বে দেশটিকে বয়কটের ডাক ওঠে। সে সময় দেশটি সফরে যান মুসলিম ব্রাদারহুড সমর্থিত প্রেসিডেন্ট মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করা জেনারেল সিসি।