advertisement
আপনি দেখছেন

উদীয়মান বিশ্ব পরাশক্তি হিসেবে বিবেচিত চীনের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংঘাতপূর্ণ অবস্থান উভয় দেশের স্বার্থকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে। আজ মঙ্গলবার (৪ মে) এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

us vs china

দেশটির সিবিএস সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়াশিংটন-বেইজিং সম্পর্ক নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। সাম্প্রতিক সময়ে তার দেশের প্রতি চীন অনেক বেশি আক্রমণাত্মক ও বিদ্বেষী আচরণ করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এর জবাবে দেশটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র সংঘাতে জড়াবে কিনা- জানতে চাইলে ব্লিঙ্কেন বলেন, উভয় দেশ সে পথে হাঁটলে অথবা তার কাছাকাছি পৌঁছার চেষ্টা করলেও তা দু’পক্ষের জন্য ক্ষতিকর হবে।

বাজারে প্রচলিত আছে, মার্কিন গোপন বাণিজ্যিক লেনদেন থেকে হাজার হাজার কোটি ডলার হাতিয়ে নিয়েছে চীন। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সরাসরি উত্তর না দিয়ে একটু ঘুরিয়ে বলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

antony blinken

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীন অন্যায্য প্রতিযোগিতায় জড়াতে চাইছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওয়াশিংটনের প্রতি বেইজিংয়ের এই ক্রমবর্ধমান বিদ্বেষী আচরণ কারো জন্যই ভালো কিছু বয়ে আনবে না।

অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের এমন বক্তব্যের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে ওয়াশিংটনস্থ চীনা দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু সেখানকার কূটনীতিকরা কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায়। খবর পার্সটুডের।

চীনের উত্থান ঠেকাতে দেশটির বিরুদ্ধে বাণিজ্য শুরু করাসহ বেশ কিছু শক্ত পদক্ষেপ নেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট চীন ইস্যুতে ভিন্ন পথে হাঁটার কথা বললেও কার্যত তেমন কোনো উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না।