advertisement
আপনি দেখছেন

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনিকে চিঠি দিয়েছেন ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর প্রধান ইসমাইল হানিয়া। আজ রোববার তিনি এ চিঠি লিখেছেন বলে খবর দিয়েছে ইরানি গণমাধ্যম।

ismile hanya and khameni

খবরে বলা হয়েছে, চিঠিতে পবিত্র জেরুজালেম আল-কুদস শহরের মুসলমানদের জন্য দৃঢ় সমর্থন দিতে মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইসমাইল হানিয়া। একই সঙ্গে পবিত্র শহরটিতে দখলদার ইসরায়েলি সেনাদের বর্বর নির্যাতন ও আগ্রাসনের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

পার্সটুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেরুজালেমে ইসরায়েলি সেনাদের চলমান আগ্রাসন, ইহুদি বসতি স্থাপন, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডকে ইহুদিকরণ, অবৈধ নির্মাণ কার্যক্রম, জাতিগত শুদ্ধি অভিযান, জোরপূর্বক ফিলিস্তিনিদের উদ্বাস্তু করা, বায়তুল মুকাদ্দাস শহরের দামেস্ক গেটে হামলা এবং পবিত্র আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর দখলদার ইসরায়েলি সেনাদের বর্বর হামলার ঘটনায় ইরানের সর্বোচ্চ নেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন হামাস প্রধান।

al aksa 2

ইসরায়েল বর্তমানে সমস্ত রেডলাইন ক্রস করেছে এবং বিশ্ব মুসলিমের অনুভূতিতে আঘাত করেছে উল্লেখ করে ইসমাইল হানিয়া বলেন, এ ধরনের তৎপরতার জন্য ইসরায়েলকে বিপজ্জনক পরিণতির মুখে পড়তে হবে।

পবিত্র রমজান মাসে ইসরায়েলের আগ্রাসী তৎপরতার সমালোচনা করে হামাস নেতা আরো বলেন, ইসরায়েলের অপরাধযজ্ঞের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিতে হবে। এ জন্য ইরানের সর্বোচ্চ নেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

এ ছাড়া আন্তর্জাতিক কূটনীতির মাধ্যমে ফিলিস্তিনিদের প্রতি ইসরায়েলের বর্বরতা বন্ধের জন্য পুরো মুসলিম বিশ্বকে জাগিয়ে তোলার আহ্বানও জানান ইসমাইল হানিয়া।