advertisement
আপনি দেখছেন

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পার্শ্ববর্তী এক আরেকটি শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে দেশটির তালেবান বিদ্রোহীরা। এ নিয়ে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে দুটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের নিয়ন্ত্রণ নিলো তালেবান। এর আগে গত ৫ মে বাঘলান প্রদেশের বোরকা জেলার নিয়ন্ত্রণ নেয় তারা।

afgan taliban control district

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, আফগান রাজধানী কাবুলের নিকটবর্তী নেরখ জেলাটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তালেবান যোদ্ধরা। এ জন্য তারা আকস্মিক হামলা চালায় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গত সোমবার ৩ দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে তালেবান। তার আগের দিনই শহরটি দখল করে নেয় তারা।

তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, তাদের যোদ্ধারা ময়দান ওয়ারদাক প্রদেশের নেরখ শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। এ সময় শহরের পুলিশ সদর দপ্তর, গোয়েন্দা দপ্তর ও বিশাল সামরিক ঘাঁটি সব তাদের দখলে চলে গেছে। এ সময় বেশ কিছু ‘শত্রুসেনা’ হতাহত হয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

এদিকে, তারিক জেলাটি দখলের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন প্রদেশের গভর্নর আবদুল রহমান। তবে তিনি বলছেন, কৌশলগত কারণেই পিছু হটেছে আফগান সেনারা।

অন্যদিকে, আজ বুধবার আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জেলাটি পুনরুদ্ধারে সমন্বিত অভিযান চালানো হবে।

afgan taliban control district inner

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তান থেকে সম্প্রতি মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনী প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ঘোষণা অনুযায়ী সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়াও ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। এর মধ্যেই দেশটিতে নতুন করে বেড়েছে সহিংসতার ঘটনা।

এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যায় অর্থাৎ তালেবানের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা দুই দিন আগে কাবুলের একটি গার্লস স্কুলের বাইরে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৬৮ জন নিহত হয়। যার অধিকাংশই ওই স্কুলের শিক্ষার্থী। ওই হামলার জন্য তালেবানকে দায়ী করেছে আফগান সরকার। তবে তা প্রত্যাখ্যান করেছে তালেবান।